ওয়ারশ চুক্তি কি

ওয়ারশ চুক্তি কি

index 6
Warsaw Pact

আমেরিকার নেতৃত্বে গড়ে ওঠা পশ্চিমি সামরিক শক্তি জোট ন্যাটো ( North Atlantic Treaty Organisation ) -র পালটা হিসেবে গড়ে ওঠে সােভিয়েত রাশিয়ার নেতৃত্বে সামরিক জোট ওয়ারশ চুক্তি সংস্থা ( Warsaw Pact Organisation or Warsaw Treaty Organisation ) । এই চুক্তির মাধ্যমে সােভিয়েত রাশিয়া চেয়েছিল তার নিজের এবং তার সহযােগী দেশগুলির নিরাপত্তা সমস্যার সমাধান করতে । স্পষ্টরূপে বলতে গেলে এই চুক্তি সংস্থা গঠিত হয়েছিল পশ্চিম জার্মানিকে ন্যাটোয় অন্তর্ভুক্তকরণ এর বিরুদ্ধে সােভিয়েত রাশিয়ার প্রতিক্রিয়া স্বরূপ । 

ওয়ারশ চুক্তি স্বাক্ষরকারী দেশ সমূহ

১৯৫৫ খ্রিস্টাব্দের ১৪ মে ওয়ারশ চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছিল । মধ্য ও পূর্ব ইউরােপের কমিউনিস্ট দেশগুলির মধ্যে এই চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছিল । এই চুক্তিতে অংশ নিয়েছিল সোভিয়েত রাশিয়া , বুলগেরিয়া , হাঙ্গেরি , পোল্যান্ড , পূর্ব জার্মানি , আলবেনিয়া , রোমানিয়া এবং চেকোস্লোভাকিয়া । 

ওয়ারশ চুক্তির উদ্দেশ্য

1. এইসব দেশ নিজেদের মধ্যে জোটে আবদ্ধ হয়েছিল যৌথ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠার জন্য । 

2. পারস্পরিক অর্থ সাহায্যের কর্মসূচি গ্রহণ ও তা রূপায়ণের লক্ষ্যে রাশিয়ার নেতৃত্বে ভবিষ্যতে এক আর্থিক সহায়তা পরিষদ গঠনের লক্ষ্য নির্ধারিত হয় । 

ওয়ারশ চুক্তির শর্ত / গৃহীত সিদ্ধান্ত

ওয়ারশ চুক্তিতে গৃহীত সিদ্ধান্তগুলির মধ্যে অন্যতম কয়েকটি ছিল — 

1. সােভিয়েত রাশিয়া ও তার সহযােগী সদস্য রাষ্ট্রগুলির নিরাপত্তা রক্ষা করবে এই জোটে আবদ্ধ প্রতিটি দেশ । 

2. জোটবদ্ধ দেশগুলির সৈন্যদের নিয়ে একটি সম্মিলিত প্রতিরক্ষা বাহিনী গঠন করা হবে । 

3. সম্মিলিত প্রতিরক্ষা বাহিনীর সদর দপ্তর প্রতিষ্ঠিত হবে মস্কোতে । 

4. সম্মিলিত প্রতিরক্ষা বাহিনীর সেনাধ্যক্ষ হবেন সােভিয়েত মার্শাল কনিয়েভ । 

5. চুক্তিভুক্ত দেশগুলি এই চুক্তির আদর্শ বিরােধী কোনাে চুক্তি বা সংস্থার সঙ্গে আবদ্ধ হতে পারবে না ।

6. চুক্তি স্বাক্ষরকারী দেশগুলি একে অপরের স্বাধীনতা ও জাতীয় সার্বভৌমত্ব মেনে নেবে । 

চুক্তির বিরােধিতা 

মার্কিন মদতে পশ্চিমি পুঁজিবাদী দেশগুলিতে ওয়ারশ চুক্তির বিরুদ্ধে জনরােষ দেখা দেয় । হাঙ্গেরিতে জাতীয়তাবাদী নেতারা কমিউনিস্ট বিরােধী সরকার গঠন করে । ফলে সােভিয়েত রাশিয়া হাঙ্গেরি আক্রমণ করে । চেকোস্লোভাকিয়াতেও একইভাবে সােভিয়েত হস্তক্ষেপের প্রয়ােজন হয়ে পড়ে । অবশেষে ১৯৬০ খ্রিস্টাব্দে আলবেনিয়া ও ১৯৬৩ খ্রিস্টাব্দে রোমানিয়া কমিকনের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করলে ওয়ারশ জোট দুর্বল হয়ে পড়ে । অবশেষে ১৯৯১ খ্রিস্টাব্দের ১ জুলাই এক সম্মেলনের মাধ্যমে এই চুক্তির মেয়াদের পরিসমাপ্তি ঘটে । 

উপসংহার 

বার্লিন সংকটের সময় পশ্চিম ইউরােপের দেশগুলির মনে যে নিরাপত্তাবােধের অভাব থেকে ন্যাটো গঠিত হয়েছিল , ঠিক একই রকমভাবে ন্যাটোর প্রত্যুত্তরে সােভিয়েত নেতৃত্বে ওয়ারশ চুক্তির মাধ্যমে সামরিক শক্তি জোট গঠিত হয়েছিল । এর পরিণতিতে ঠান্ডা লড়াই আরও ত্বরান্বিত হয় । এ প্রসঙ্গে ‘ লেভিয়াথান ’ গ্রন্থে হবসের উক্তি তুলে ধরা যায় — যুদ্ধ শুধু আঘাত-প্রত্যাঘাতেই হয় তা নয় , আঘাতের ইচ্ছা ও প্রস্তুতিও যুদ্ধের অঙ্গ ।

Leave a Comment

error: Content is protected !!