1947 সালের ভারতীয় স্বাধীনতা আইন

Contents

1947 সালের ভারতীয় স্বাধীনতা আইন

ভারতীয় স্বাধীনতা আইন অনুসারে ভারত পাকিস্তান দুই আলাদা রাষ্ট্র হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে । বহু রক্তক্ষয়ী সংগ্রামের মধ্যদিয়ে বহু রক্তপিচ্ছিল পথ অতিক্রম করে ভারতবাসী স্বাধীনতার আস্বাদ পায় । 

ব্রিটিশ পার্লামেন্টে ভারতীয় স্বাধীনতা আইন পাস

ব্রিটিশ পার্লামেন্টে ১৯৪৭ খ্রিস্টাব্দের ৪ জুলাই ভারতীয় স্বাধীনতা আইন বিনা বাধায় পাস হয়ে যায় । ১৮ জুলাই এই আইনটি রাজকীয় সম্মতি পায় । এই রাজকীয় আইনটি কার্যকরী হওয়ার দিন নির্দিষ্ট হয় ১৪ এবং ১৫ আগস্ট , ১৯৪৭ খ্রি.। এই আইনের বলে ভারত ও পাকিস্তান দুই আলাদা ডােমিনিয়নের হাতে আলাদা আলাদাভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর করা হয় । পাকিস্তান রাষ্ট্রের অন্তর্ভুক্ত হয় মাউন্টব্যাটেন প্রস্তাবের অন্তর্ভুক্ত প্রদেশগুলি । আর অবশিষ্ট অংশ নিয়ে গঠিত হয় ভারতবর্ষ । 

ভারতীয় স্বাধীনতা আইনের শর্ত বা ধারা বা বৈশিষ্ট্য

ভারতের স্বাধীনতা আইনের বিভিন্ন শর্ত বা ধারাগুলি ছিল এইরকম —  

1. ভারতবর্ষকে বিভক্ত করা হবে এবং ১৯৪৭ খ্রিস্টাব্দের ১৫ আগস্ট ‘ ভারত ’ ও ‘ পাকিস্তান ’নামে দুটি স্বাধীন রাষ্ট্র আত্মপ্রকাশ করবে । 

2. দুটি রাষ্ট্রের ওপর থেকে ব্রিটিশ পার্লামেন্টের সমস্ত অধিকার লুপ্ত হবে । উভয় রাষ্ট্রই স্বাধীনভাবে তাদের অভ্যন্তরীণ ও পররাষ্ট্রীয় ব্যাপার পরিচালনা করবে এবং সংবিধান রচনা করবে । ইংল্যান্ডের রাজকীয় পদবি থেকে ‘ ভারত সম্রাট ’ কথাটি তুলে দেওয়া হবে । 

3. দেশীয় রাজ্যগুলির রাজারা ভারত বা পাকিস্তান যে-কোনাে ডােমিনিয়নে যােগ দিতে পারবে । 

5. আসামের শ্রীহট্ট জেলায় গণভােটে স্থির হবে তা ভারত বা পাকিস্তান কোন্ ডােমিনিয়নে থাকবে । দেশীয় রাজ্যগুলির ওপর ব্রিটেনের সার্বভৌম অধিকার লুপ্ত হবে । 

স্বাধীনতার স্বরূপ 

পলাশীর আম্রকাননে ভারতের যে স্বাধীনতার সূর্যাস্ত ঘটেছিল তার সূর্যোদয় ঘটেছিল ১৯৪৭ খ্রিস্টাব্দের ১৫ আগস্ট । ভারতবাসীর এই স্বাধীনতা বহু আকাঙ্ক্ষিত হলেও তার মধ্যে বিষাদের সুর ছিল । কারণ টুকরাে করা স্বাধীনতা ভারতবাসীকে অনিচ্ছা সত্ত্বেও মেনে নিতে হয়েছিল । স্বাধীন ভারতের প্রথম গভর্নর জেনারেল হিসেবে শপথ নেন মাউন্টব্যাটেন এবং প্রথম প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহরুর নেতৃত্বে ভারতীয় মন্ত্রীসভা শপথ গ্রহণ করে । এর আগে ১৪ আগস্ট ডােমিনিয়ন পাকিস্তানের প্রথম গভর্নর জেনারেল হিসেবে শপথ নেন মহম্মদ আলি জিন্না । 

মূল্যায়ন 

ভারতীয় স্বাধীনতা আইন মুসলিমদের আকাঙ্ক্ষা পূরণ করেছিল । তারা আলাদা রাষ্ট্র পেয়েছিল । কিন্তু আপামর ভারতবাসী এই স্বাধীনতা চায়নি তাই ভারতীয় স্বাধীনতা আইনকে ভারত টুকরাের ষড়যন্ত্র বলা যেতে পারে । ড. বিপান চন্দ্র  বলেছেন — ১৯৪৭ – এ নেহরু , প্যাটেল ও গান্ধীজি শুধু যা অবশ্যম্ভাবী তাকেই মেনে নিয়েছিলেন ( ‘ It was forgotten that Nehru , Patel and Gandhiji in 1947 were only accepting what had become inevitable ‘ ) ।

One thought on “1947 সালের ভারতীয় স্বাধীনতা আইন

  • November 21, 2022 at 11:59 am
    Permalink

    It was Nicely described

    Reply

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!