ব্রেস্ট লিটোভস্ক সন্ধি

ব্রেস্ট লিটোভস্ক সন্ধি

images
ব্রেস্ট লিটোভস্ক সন্ধি

প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সময় নানা ছােটোখাটো সমস্যা নতুন বিপ্লবী বলশেভিক সরকারের পথে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছিল । তাই লেনিনের নেতৃত্বে প্রথম বিশ্বযুদ্ধ চলাকালে জার্মানি ও রাশিয়ার মধ্যে একটি যুদ্ধ বিরতি শান্তি চুক্তি ব্রেস্ট লিটোভস্ক সন্ধি স্বাক্ষরিত হয় । ১৯১৮ খ্রিস্টাব্দের ৩ মার্চ জার্মানির অত্যন্ত কঠোর শর্তেই রাশিয়া একতরফাভাবে ওই সন্ধি স্বাক্ষর করেছিল । বরং বলা যেতে পারে , লেনিনের না যুদ্ধ নীতির আদর্শকে রক্ষা করতে বহু মূল্য দিয়েই রাশিয়াকে এই ‘ শান্তি ’ কিনতে হয়েছিল । এ প্রসঙ্গে লেনিন  বলেছেন — এই শান্তি বলশেভিকদের কিছুদিনের জন্য স্বস্তি ফিরিয়ে দেবে আর তারা সেই সুযােগে দেশের ওপর নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করতে পারবে ( Peace would give the Bolsheviks a breathing space which would help them get a grip on the country )। 

ব্রেস্ট লিটোভস্ক সন্ধি শর্তাবলী

এই সন্ধির শর্তগুলি ছিল এরকম — 

1. রাশিয়া ইউরােপসহ কোনাে রাষ্ট্রেই বলশেভিক সমাজতন্ত্রের প্রচার চালাবে না , 

2. রাশিয়া জামার্নিকে ক্ষতিপূরণ দিতে বাধ্য থাকবে , 

3. তুরস্ককে বর্টুম কার্স , আর্দাহান প্রদেশগুলি রাশিয়া ফিরিয়ে দেবে , 

4. রাশিয়া পােল্যান্ড , তিনটি বাল্টিক রাজ্য , ইউক্রেন , ট্রান্স – ককেশীয় কুরল্যান্ড , লিথুয়ানিয়া থেকে নিজের কর্তৃত্ব প্রত্যাহার করবে , 

5. রাশিয়া লিভোনিয়া , এস্টোনিয়া ও ফিনল্যান্ড পরিত্যাগ করবে ।

ব্রেস্ট লিটোভস্ক সন্ধি ফলাফল

এই সন্ধির ফলে রাশিয়ার অর্থনীতির ওপর বেশ বড়াে রকমের আঘাত এসেছিল । যেমন — 

1. জার্মানিকে বিশাল অঙ্কের ক্ষতিপূরণ দিতে হয় । 

2. বিশাল কৃষিক্ষেত্র এবং শিল্পজাত দ্রব্যের উৎপত্তিস্থল রাশিয়ার হাতছাড়া হয়ে যায় । 

3. পােল্যান্ড , এস্তোনিয়া , লাটভিয়া , লিথুয়ানিয়া , ফিনল্যান্ড , ইউক্রেন ও জর্জিয়া জার্মানিকে ছেড়ে দিতে হয় । 

4. সন্ধি স্বাক্ষরের এক সপ্তাহের মধ্যে রাশিয়া তার রাজধানী পেট্রোগার্ড থেকে মস্কোতে সরিয়ে নেয় । 

5. রাশিয়াকে প্রতিশ্রুতি দিতে হয় যে , সে ইউরােপের অন্যান্য রাষ্ট্রে বলশেভিক প্রচারকাজ চালাবে না । 

ব্রেস্ট লিটোভস্ক সন্ধি গুরুত্ব

প্রথমত , কঠোর হলেও এই চুক্তি নিঃসন্দেহে লেনিনের রাজনৈতিক বিচক্ষণতার পরিচায়ক । এই চুক্তির সুবাদেই বলশেভিক সরকার রাশিয়ার অভ্যন্তরীণ পুনর্গঠনের কাজে যেমন হাত দেয় , তেমনি দেশের ওপর তাদের নিয়ন্ত্রণ সুপ্রতিষ্ঠিত করতে সক্ষম হয় । 

দ্বিতীয়ত , এই সন্ধিকে , কার্যোদ্ধারের জন্য নিতান্ত সাময়িক ব্যবস্থা বলেই লেনিন মনে করতেন । তাই মিত্রবাহিনীর কাছে জার্মানি আত্মসমর্পণ করলে সঙ্গে সঙ্গে লেনিন ওই সন্ধিকে বাতিল বলে ঘােষণা করেন । এইভাবে ব্রেস্ট লিটোভস্কের সন্ধি দ্বারা রাশিয়ায় শান্তি স্থাপন করে লেনিন রুশ বিপ্লবকেই রক্ষা করেছিলেন ।

Leave a Comment

error: Content is protected !!