ভারতে রেলপথ স্থাপনে ইংরেজদের উদ্দেশ্য গুলি আলোচনা করো

Contents

ভারতে রেলপথ স্থাপনে ইংরেজদের উদ্দেশ্য গুলি আলোচনা করো

রেলপথ স্থাপনকে ঘিরে উনিশ শতকের দ্বিতীয় লগ্ন থেকে ভারতবাসীর অর্থনৈতিক জীবনে পরিবর্তন ঘটতে শুরু করে । গভর্নর জেনারেল ডালহৌসির আমলেই ভারতে প্রথম ( ১৮৫৩ খ্রি. ১৬ এপ্রিল ) বােম্বাই থেকে থানে পর্যন্ত ২১ মাইল দীর্ঘ রেলযােগাযােগ স্থাপন করে গ্রেট ইন্ডিয়ান পেনিনসুলার রেলওয়ে কোম্পানি ( G.I.P.R ) । ১৮৫৩ খ্রিস্টাব্দে তাঁর বিখ্যাত প্রতিবেদনে বড়লাট লর্ড ডালহৌসি ঘােষণা করেন যে , ভারতীয় অর্থনীতি আধুনিকীকরণের উদ্দেশ্যেই রেলপথ স্থাপন করা হল । কাল মার্কসের  মতে — ভারতের রেলওয়ে ব্যবস্থা হবে প্রকৃত অর্থেই আধুনিক শিল্পায়নের অগ্রদূত ( ‘ The Railway system will become in India truly the fore – runner of modern industry ‘) ।

300px PalestineRailways 1946 ClassH 1 1
ভারতীয় রেল

ভারতে রেলপথ স্থাপনে ব্রিটিশের উদ্দেশ্য

রেলপথ প্রবর্তনে লর্ড ডালহৌসির ব্যক্তিগত উদ্যোগের লক্ষ্য ছিল —

  1. ভারতের দূরবর্তী জায়গাগুলিতে বিদ্রোহ দমনের জন্য অত্যন্ত দ্রুত সেনাবাহিনী পাঠানাে । 
  2. রেলপথের মাধ্যমে যােগাযােগ ব্যবস্থাকে উন্নততর করে তুলে বাণিজ্যিক সুযােগসুবিধাগুলিকে আরও প্রসারিত করা । 
  3. রেলপথের মাধ্যমে শিল্প পরিকাঠামাে গড়ে তুলে ব্রিটিশ পুঁজিপতিদের শিল্পোদ্যোগকে স্বাগত জানানাে । 
  4. দূরবর্তী অঞ্চল গুলি থেকে রেলপথের মাধ্যমে অতি সহজেই বাণিজ্যিক বন্দরগুলিতে কাঁচামাল আদানপ্রদানের সুযােগ বৃদ্ধি করা ।

অর্থনৈতিক উদ্দেশ্য :

  1. ইংল্যান্ডে শিল্পবিপ্লবের দৌলতে উৎপাদিত বিপুল পরিমাণ ব্রিটিশ পণ্য ভারতের প্রত্যন্ত অঞ্চলে পৌঁছে দেওয়া ।
  2. শিল্প বিপ্লবের ফলে ব্রিটিশ পুঁজিপতিদের হাতে জমে যাওয়া প্রচুর উদ্বৃত্ত পুঁজির লাভজনক বিনিয়ােগের নিরাপদ ক্ষেত্র তৈরি করা । 
  3. রেলপথকে বৃহৎ প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তুলে এদেশে কর্মসংস্থানের সুযােগ বাড়ানাে ।

রাজনৈতিক প্রশাসনিক উদ্দেশ্য :

ডালহৌসির শাসনকালে ভারতে ব্রিটিশ সাম্রাজ্য বিশাল আকার নেই ।  তাই রাজনৈতিক ও প্রশাসনিক কাজের সুবিধার্থে বিশাল ওই সাম্রাজ্যের বিভিন্ন অংশের মধ্যে ‌ দ্রুত সংবাদ আদান-প্রদান ও যােগাযােগ গড়ে তোলার জন্য আধুনিক পরিবহন ব্যবস্থার প্রয়ােজন দেখা দেয়।

সামরিক উদ্দেশ্য :

বহিঃশত্রুর আক্রমণ ও দেশের অভ্যন্তরে বিভিন্ন বিদ্রোহের মােকাবিলা করা , সেনাবাহিনীর কাছে খাদ্য ও রসদ‌  দ্রুত পৌছে দেওয়া ইত্যাদি কাজেও রেলপথ অপরিহার্য ছিল । তাই দেখা যায় , মহাবিদ্রোহের পর তীব্র অর্থসংকট সত্ত্বেও সামরিক দিক থেকে গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলিতে দ্রুত রেলপথ নির্মিত হয়েছে ।

উপসংহার

ব্রিটিশ ভারতে রেলপথ স্থাপনের মাধ্যমে ভারতবাসীর স্বার্থচিন্তা অপেক্ষা নিজেদের স্বার্থ চরিতার্থ করতে চেয়েছিল । সুগত বসুআয়েষা জালাল তাঁদের ‘ Modern South Asia ‘ গ্রন্থে লিখেছেন — ব্রিটেনের  ঔপনিবেশিক স্বার্থ সংরক্ষণের জন্য ভারতে রেলপথ স্থাপনের কর্মকাণ্ড গৃহীত হয়েছিল ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!