জীবন বিজ্ঞান

সংযোগ রক্ষাকারী প্রাণী

সংযোগ রক্ষাকারী প্রাণী

843956df 4a38 409f b58f 8931fca6521c1
পেরিপেটাস

সংযোগ রক্ষাকারী প্রাণী হল এমন প্রাণী যেগুলি বিভিন্ন শ্রেণি বা পর্বের মধ্যে সংযোগ স্থাপন করে অথবা একটি সেতু হিসাবে কাজ করে। সংযোগ রক্ষাকারী প্রাণীগুলির মধ্যে প্রায়শই এমন বৈশিষ্ট্য দেখা যায় , যা তাদের শ্রেণি বা পর্বের অন্যান্য সদস্যদের মধ্যে দেখা যায় না। এই বৈশিষ্ট্যগুলি তাদের বিবর্তনের ইতিহাস সম্পর্কে আমাদের তথ্য সরবরাহ করতে পারে।

একটি বিখ্যাত সংযোগ রক্ষাকারী প্রাণী হল পেরিপেটাস (Peripatus), যাকে “জীবন্ত জীবাশ্ম” বলা হয়। পেরিপেটাস একটি ছোট, নরম দেহযুক্ত প্রাণী যা বৃষ্টির বনের মাটিতে বাস করে। এর দেহে পাঁচ জোড়া নমনীয় পা রয়েছে যা এটিকে মাটিতে স্লাইড করতে দেয়। পেরিপেটাসের শরীরে ত্বকের গ্রন্থি রয়েছে যা একটি আঠালো পদার্থ নিঃসরণ করে, যা এটিকে গাছের গুঁড়িতে লেগে থাকতে দেয়।

পেরিপেটাসকে সংযোগ রক্ষাকারী প্রাণী বলা হয় কারণ এর কিছু বৈশিষ্ট্য অঙ্গুরীমাল এবং সন্ধিপদ উভয়েরই মতো । পেরিপেটাসের দেহ কৃমির ( অঙ্গুরীমাল ) মতো নমনীয় হলেও এর পা আর্থ্রোপডের ( সন্ধিপদ ) পায়ের মতো। পেরিপেটাস কৃমির মতো মাটিতে স্লাইড করতে পারে, তবে এটি আর্থ্রোপডের মতো খাবার খায়।

পেরিপেটাস ছাড়াও, আরও অনেক সংযোগ রক্ষাকারী প্রাণী রয়েছে। উদাহরণস্বরূপ,

লাংফিস → মৎস্য ও উভচর

স্ফেনোডন → উভচর ও সরীসৃপ

আর্কিওপটেরিক্স (জীবাশ্ম) → পক্ষী ও সরীসৃপ

প্লাটিপাস ( হংসচঞ্চু ) → সরীসৃপ ও স্তন্যপায়ী

ডিপলোভার্টিব্রণ → মাছ ও উভচর

সেম্যুরিয়া → উভচর ও সরীসৃপ

এই সংযোগ রক্ষাকারী প্রাণীকে “সংযোজক প্রাণী” বা “যোগসূত্র প্রাণী”ও বলা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!