অপারেশন ব্ল্যাকবোর্ড 

অপারেশন ব্ল্যাকবোর্ড 

‘ অপারেশন ব্ল্যাকবোর্ড ’ হল একটি কর্ম প্রকল্প । এই প্রকল্পটি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলির দৈন্য দশা দূর করার জন্য এবং সাক্ষরতা প্রসারের কাজকে ত্বরান্বিত করার জন্য কেন্দ্রীয় মানব সম্পদ মন্ত্রকের পক্ষ থেকে গ্রহণ করা হয় । এখানে ‘ ব্ল্যাকবোর্ড ’ শব্দটিকে প্রতীক হিসেবে ধরা হয় । ‘ ব্ল্যাকবোর্ড ’ শব্দটির দ্বারা প্রাথমিক স্তরের শিক্ষা সহায়ক সবরকম উপাদানকে বোঝানো হয় ।

অপারেশন ব্ল্যাকবোর্ড কর্মসূচি গ্রহণের কারণ 

সমীক্ষায় দেখা গেছে , দেশে এমন অনেক বিদ্যালয় আছে যেখানে ঘর নেই , শিক্ষা দানের জন্য উপযুক্ত শিক্ষা সহায়ক উপকরণ নেই , প্রয়োজনীয় শিক্ষক নেই । গ্রামাঞ্চলে প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলি শিশুদের বাড়ি থেকে অনেক দূরে , অধিকাংশ বিদ্যালয়ে শৌচাগার নেই , পানীয় জলের ব্যবস্থা নেই । এইসব কারণে ছাত্রছাত্রীরা বিদ্যালয়ে আসে না । তাই অপারেশন ব্ল্যাকবোর্ড কর্মসূচি গ্রহণ করা হয় । 

অপারেশন ব্ল্যাকবোর্ড প্রকল্পের কর্মসূচি 

অপারেশন ব্ল্যাকবোর্ড প্রকল্পের মাধ্যমে যেসব ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলা হয় তা হল : 

[ 1 ] প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অন্তত দুখানা বড়ো বড়ো ঘর থাকবে — যেগুলি সব ঋতুতেই ব্যবহার করা চলবে । 

[ 2 ] প্রাক্‌ প্রাথমিক স্তরের শিশুদের জন্য খেলা ভিত্তিক শিক্ষানীতি অনুসরণ করতে হবে । 

[ 3 ] মানচিত্র , চার্ট , ব্ল্যাকবোর্ড ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় শিক্ষা সহায়ক সরঞ্জাম সরবরাহ করা । 

[ 4 ] অন্তত দুজন শিক্ষক প্রত্যেকটি বিদ্যালয়ে নিযুক্ত হবেন যার মধ্যে একজন হবেন মহিলা , অন্যজন হবেন পুরুষ । ক্রমশ প্রতিটি শ্রেণিতে একজন করে শিক্ষক নিয়োগ করার ব্যবস্থা করতে হবে । 

[ 5 ] প্রতিটি বিদ্যালয়ে পানীয় জল এবং শৌচাগারের ব্যবস্থা করতে হবে । অপারেশন ব্ল্যাকবোর্ড কর্মসূচির উদ্দেশ্য কেবলমাত্র বিদ্যালয়গুলিতে ব্ল্যাকবোর্ড বা শিক্ষা সহায়ক উপকরণ সরবরাহ নয় , বরং দেশের বিদ্যালয়গুলির মান উন্নয়ন করে ছাত্রছাত্রীদের বিদ্যালয়মুখী করা এবং বিদ্যালয়ে শিক্ষার পরিবেশ সৃষ্টি করা ।

error: Content is protected !!