লোক আদালত ও সাধারণ আদালতের পার্থক্য 

লোক আদালত ও সাধারণ আদালতের পার্থক্য 

সাধারণ আদালত ও লোক আদালতের মধ্যে পার্থক্য গুলি হল ―

প্রতিষ্ঠানগত পার্থক্য 

সাধারণ আদালতগুলি মূলত প্রতিষ্ঠান কেন্দ্রিক । এই কারণে সাধারণ আদালতগুলিতে আইনি কাঠামোর বাইরে কোনো কিছু ভাবা হয় না । 

অন্যদিকে , লোক আদালত প্রতিষ্ঠান কেন্দ্রিক ধারণার বাইরে ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গির ভিত্তিতে বিরোধ নিষ্পত্তির জন্য কাজ করে । 

ব্যয় সংক্রান্ত পার্থক্য 

সাধারণ আদালতগুলিতে বিচার ব্যবস্থা যেভাবে পরিচালিত হয় তা ব্যয় সাপেক্ষ । 

অন্যদিকে , লোক আদালত সমাজের দুর্বলতর শ্রেণিকে বিনামূল্যে আইনি সাহায্য দেওয়ার জন্য কাজ করে । 

সময় সংক্রান্ত পার্থক্য 

সাধারণ আদালতগুলিতে মামলার নিষ্পত্তি অত্যন্ত সময় সাপেক্ষ হয়ে দাঁড়ায় । 

অন্যদিকে , লোক আদালতগুলিতে মামলার নিষ্পত্তি দ্রুত হয়ে থাকে । 

মামলার প্রকৃতি সংক্রান্ত পার্থক্য 

সাধারণ আদালতগুলিতে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিরোধের নিষ্পত্তি করা হয় । ফৌজদারি , দেওয়ানি ও অন্য বিষয়গুলির বিচার এই আদালতে হয়ে থাকে । কিন্তু , লোক আদালতে অপেক্ষাকৃত কম গুরুত্বপূর্ণ মামলাগুলি বিচারের জন্য গৃহীত হয় ; যেমন — পথ দুর্ঘটনা জনিত ক্ষতিপূরণ , সম্পত্তি বিষয়ক বিরোধ , দাম্পত্য বিরোধ ইত্যাদি । 

প্রসঙ্গত বলা যায় , ফৌজদারি বিরোধের ক্ষেত্রে লোক আদালতের কোনো এক্তিয়ার নেই । 

রায় সম্পর্কিত পার্থক্য 

সাধারণ আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চতর আদালতে আপিল করা যায় । 

অন্যদিকে , লোক আদালতের রায় চূড়ান্ত । সেই রায় মানতে সংশ্লিষ্ট পক্ষগুলি বাধ্য । লোক আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে কোনো আপিল করা যায় না । 

দৃষ্টিভঙ্গির পার্থক্য 

প্রচলিত ব্যবস্থায় ন্যায় বিচারের জন্য মানুষকে সাধারণ আদালতগুলির কাছে ছুটে যেতে হয় । কিন্তু লোক আদালত নিজেই ন্যায়বিচার নিয়ে মানুষের দোরগোড়ায় ছুটে আসে । লোক আদালত বিবদমান পক্ষগুলির মধ্যে এমনভাবে বিরোধ নিষ্পত্তি করে যাতে পুনরায় পারস্পরিক সদ্ভাব গড়ে ওঠে । এইজন্য বিরোধের সঙ্গে জড়িত উভয় পক্ষই বিজয়ীর সন্তুষ্টি লাভ করে ।

error: Content is protected !!