ভারতের বিভিন্ন ধরনের আদালত 

ভারতের বিভিন্ন ধরনের আদালত 

সুপ্রিমকোর্ট 

ভারতের অখণ্ড বিচার ব্যবস্থায় ( Integrated Judicial System ) সবার শীর্ষে রয়েছে সুপ্রিমকোর্টসুপ্রিমকোর্টকে ভারতের সর্বোচ্চ আদালত বা যুক্তরাষ্ট্রীয় আদালত বলা হয় । এই আদালত একাধারে সংবিধানের অভিভাবক ও ব্যাখ্যাকর্তা , নাগরিক অধিকারের সংরক্ষক , কেন্দ্র-রাজ্য বিরোধের মীমাংসক এবং রাষ্ট্রপতির পরামর্শদাতা । 

হাইকোর্ট 

সুপ্রিমকোর্টের পরবর্তী পর্যায়ে আছে রাজ্যের সর্বোচ্চ আদালত হাইকোর্ট । সংবিধানের ২১৪ নং ধারায় বলা হয়েছে ভারতের প্রত্যেক রাজ্যে একটি করে হাইকোর্ট থাকবে । তবে সংবিধানের সপ্তম সংশোধনী অনুসারে পার্লামেন্ট আইন প্রণয়ন করে দুই বা ততোধিক রাজ্যের বা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের জন্য মাত্র একটি হাইকোর্ট গঠন করতে পারে । ভারতে বর্তমানে ২৮ টি অঙ্গরাজ্য এবং ৭ টি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের জন্য সর্বমোট ২১ টি হাইকোর্ট রয়েছে । 

অধস্তন আদালত 

হাইকোর্টের পরবর্তী পর্যায়ে রয়েছে অধস্তন আদালত । এই অধস্তন আদালতগুলিকে দুটি ভাগে ভাগ করা হয় — 1. জেলার অধস্তন আদালত ( Districts Subordinate Courts ) , 2. মহানগরীয় অঞ্চলের অধস্তন আদালত ( Metropolitan Areas Subordinate Courts ) ।

জেলার অধস্তন আদালত : 

জেলার অধস্তন আদালতগুলিকে দুটি ভাগে ভাগ করা যায়— i. দেওয়ানি আদালত ( Civil Courts ) ও ii. ফৌজদারি আদালত ( Criminal Courts ) । 

দেওয়ানি আদালতগুলি আবার চারটি পর্যায়ে বিভক্ত — [ 1 ] জেলা বিচারকের আদালত ( District Judge’s Court ) , [ 2 ] অবর বিচারকের আদালত ( Subordinate Judge’s Court ) , [ 3 ] মুনসেফের আদালত ( Munsiff’s Court ) , [ 4 ] ন্যায় পঞ্চায়েত ( Nyaya Panchayats ) । 

অন্যদিকে ফৌজদারি আদালতগুলির তিনটি শ্রেণি রয়েছে । এগুলি হল – [ 1 ] দায়রা আদালত ( Sessions Judge’s Court ) , [ 2 ] অবর ম্যাজিস্ট্রেটের আদালত ( Subordinate Magistrate’s Court ) । এই আদালতে দু-ধরনের ম্যাজিস্ট্রেট থাকেন : বিচারবিভাগীয় ম্যাজিস্ট্রেট ( Judicial Magistrate ) এবং প্রশাসনিক ম্যাজিস্ট্রেট ( Executive Magistrate ) । [ 3 ] পঞ্চায়েত আদালত — ফৌজদারি আদালতের সর্বনিম্নস্তরে অবস্থিত এই আদালতে গ্রামের ছোটোখাটো বিরোধের নিষ্পত্তি করা হয় । 

মহানগরীয় অঞ্চলের আদালত :

মহানগরীয় অঞ্চলের ( কলকাতা , চেন্নাই , মুম্বাই প্রভৃতি ) সর্বোচ্চ আদালত হল মহানগরীয় ম্যাজিস্ট্রেটের আদালত ( Metropolitan Magistrate’s Court ) । এর পরবর্তী পর্যায়ে রয়েছে নগর দেওয়ানি আদালত ( City Civil Court ) এবং ক্ষুদ্র আদালত ( Small Causes Court ) । মহানগরীয় অঞ্চলের ফৌজদারি আদালতগুলি হল নগর দায়রা আদালত ( City Sessions Court ) এবং প্রেসিডেন্সি ক্ষুদ্র আদালত ( Presidency Small Causes Court ) । 

লোক আদালত

লোক আদালত ভারতের বিচার ব্যবস্থার একটি সাম্প্রতিক মৌলিক সংযোজন । ১৯৮৫ সাল নাগাদ লোক আদালতের সূচনা ঘটে । অপেক্ষাকৃত কম গুরুত্বপূর্ণ মামলার দ্রুত নিষ্পত্তির জন্য এবং মামলার ব্যয়ভার ও দীর্ঘমেয়াদি সময় হ্রাসের জন্য লোক আদালত গঠন করা হয় । 

অন্যান্য আদালত 

ভারতের বিচার ব্যবস্থায় অন্যান্য আদালতের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল— শিল্পক্ষেত্রে শ্রমিক-মালিক বিরোধ নিষ্পত্তির জন্য শিল্প আদালত ; সামরিক বাহিনীর জন্য সামরিক আদালত ; সরকারি কর্মী , স্থানীয় সংস্থা ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মীদের চাকরি সংক্রান্ত বিরোধ নিষ্পত্তির জন্য প্রশাসনিক আদালত

error: Content is protected !!