ভারতের কেন্দ্রীয় প্রশাসনের বৈশিষ্ট্য

ভারতের কেন্দ্রীয় প্রশাসনের বৈশিষ্ট্য

ভারতের কেন্দ্রীয় প্রশাসনের কয়েকটি অপরিহার্য মৌলিক বৈশিষ্ট্য রয়েছে এই বৈশিষ্ট্যগুলির মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল—

সংসদীয় গণতান্ত্রিক কাঠামো 

ভারতের কেন্দ্রীয় প্রশাসন সংসদীয় গণতান্ত্রিক কাঠামোকে অনুসরণ করে প্রবর্তিত হয়েছে । এজন্য প্রশাসনে নামসর্বস্ব ও প্রকৃত , এই দু ধরনের শাসক প্রধানের অস্তিত্ব লক্ষ করা যায় । কেন্দ্রীয় প্রশাসনের যাবতীয় ক্ষমতা তত্ত্বগতভাবে ভারতের রাষ্ট্রপতির হাতে অর্পিত হয়েছে । সমগ্র কেন্দ্রীয় প্রশাসন তাঁর নামে পরিচালিত হয় [ ৭৭ ( ১ ) নং ধারা ] । 

কিন্তু বাস্তবে , রাষ্ট্রপতি কেন্দ্রীয় প্রশাসনের নাম সর্বস্ব শাসক প্রধান মাত্র । সংসদীয় গণতন্ত্রের বিধি অনুসারে প্রধানমন্ত্রী ও তাঁর ক্যাবিনেট মন্ত্রীদের ওপর কেন্দ্রীয় প্রশাসন পরিচালনার গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব রয়েছে । কেন্দ্রীয় প্রশাসনের প্রকৃত শাসক প্রধান হলেন প্রধানমন্ত্রী ও তাঁর ক্যাবিনেট মন্ত্রীবৃন্দ । 

রাজনৈতিক ও অরাজনৈতিক প্রশাসক 

অনেকে কেন্দ্রীয় প্রশাসনে দু ধরনের প্রশাসকের উপস্থিতির কথা বলেন , যথা : স্থায়ী অরাজনৈতিক প্রশাসক এবং অস্থায়ী রাজনৈতিক প্রশাসক । স্থায়ী অরাজনৈতিক প্রশাসকরা হলেন সরকারি প্রশাসনে নিযুক্ত আমলা ও সরকারি কর্মচারীরা , অন্যদিকে অস্থায়ী রাজনৈতিক প্রশাসক হলেন রাষ্ট্রপতি , উপরাষ্ট্রপতি , প্রধানমন্ত্রী এবং কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভার সদস্যরা । 

ক্যাবিনেট সচিবালয় 

ক্যাবিনেট সচিবালয়ের গঠন :

কেন্দ্রীয় ক্যাবিনেটের মুখ্য পরামর্শদাতারূপে সচিবরা যে কার্যালয় থেকে তাদের কাজকর্ম সম্পাদন করেন তাকে ক্যাবিনেট সচিবালয় বলা হয় । ক্যাবিনেট সচিবালয়ের প্রশাসনিক প্রধান হলেন ক্যাবিনেট সচিব এবং রাজনৈতিক প্রধান হলেন প্রধানমন্ত্রী । ক্যাবিনেট সচিবালয়ের বিভিন্ন শাখার ( wing ) দায়িত্বে রয়েছেন অন্যান্য সচিবরা । বর্তমানে কেন্দ্রীয় সচিবালয়ের অধীনস্থ শাখাগুলি হল— 1. নিরাপত্তা , 2. সমন্বয় , 3. গবেষণা ও বিশ্লেষণ । 

ক্যাবিনেট সচিবালয়ের কাজ : 

ক্যাবিনেট সচিবালয়ের মুখ্য কাজ হল— 

1. কেন্দ্রীয় ক্যাবিনেট ও তার বিভিন্ন কমিটিকে প্রশাসনিক কাজে সহায়তা করা ; 

2. রাষ্ট্রপতি , প্রধানমন্ত্রী , সংসদ এবং বিভিন্ন মন্ত্রককে তাদের কাজকর্ম পরিচালনায় প্রয়োজনীয় পরামর্শ ও সাহায্য প্রদান করা ; 

3. বিভিন্ন মন্ত্রক ও প্রশাসনিক দপ্তরগুলির কাজকর্মে সমন্বয় সাধন করা ; 

4. ক্যাবিনেট বৈঠকের আলোচ্য বিষয়সূচি স্থির করা ইত্যাদি । 

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় 

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় এর গঠন : 

কেন্দ্রীয় প্রশাসনের প্রধান হিসেবে প্রধানমন্ত্রীকে সরকারি কাজকর্ম পরিচালনায় যথাযথ সহায়তা করার উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সৃষ্টি হয় । একজন প্রধান সচিব ( Principal Secretary ) , একজন অতিরিক্ত সচিব ( Additional Secretary ) , তিনজন যুগ্ম সচিব ( Joint Secretary ) , চারজন আধিকারিক ( Director ) এবং বহু সংখ্যক প্রথম , দ্বিতীয় , তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণির সরকারি কর্মীকে নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় গঠিত হয় । 

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় এর কাজ : 

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অনেকগুলি গুরুত্বপূর্ণ কাজের মধ্যে বিশেষ উল্লেখযোগ্য হল— 

1. নিয়ম মাফিক যে সমস্ত বিষয় প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরে আসে গুরুত্ব অনুযায়ী সেগুলি সম্পর্কে ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেওয়া ; 

2. যোজনা কমিশনের সভাপতিরূপে দায়িত্ব পালনের কাজে প্রধানমন্ত্রীকে সহায়তা করা ; 

3. সংসদে প্রশ্নোত্তর পর্বে বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দিতে প্রধানমন্ত্রীকে সাহায্য করা ; 

4. প্রধানমন্ত্রীর গুরুত্বপূর্ণ ভাষণ , ঘোষণা , তাৎক্ষণিক বিতর্কের জবাব ইত্যাদির খসড়া তৈরি করে দেওয়া ; 

5. সরকারের বিভিন্ন দপ্তর ও মন্ত্রকের সঙ্গে সংযোগ ও সমন্বয় রেখে চলা ;

6. জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে বিভিন্ন বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর প্রধান পরামর্শদাতা হিসেবে কাজ করা ;  

7. প্রধানমন্ত্রীর প্রচার ও জনসংযোগ মূলক কাজের দায়িত্ব পালন করা ইত্যাদি । 

কেন্দ্রীয় সচিবালয় 

কেন্দ্রীয় সচিবালয় এর গঠন : 

কেন্দ্রীয় সচিবালয়কে সরকারের স্নায়ুকেন্দ্র বলে অভিহিত করা হয় । কেন্দ্রীয় মন্ত্রীদের মুখ্য পরামর্শদাতা রূপে সচিবরা যে কার্যালয় থেকে তাদের কাজকর্ম সম্পাদন করেন তাকে সাধারণভাবে কেন্দ্রীয় সচিবালয় বলা হয় । সচিবালয়ের সর্বোচ্চ পদে রয়েছেন সচিব । সচিবকে , বিভাগীয় প্রশাসনিক প্রধান বলা হয় । এছাড়া রয়েছেন , অতিরিক্ত সচিব ও যুগ্ম সচিব । যুগ্ম সচিবের নীচে রয়েছেন নির্দেশক ( Director ) , সহকারী সচিব ও অধস্তন সচিব এবং আধিকারিকরা ও অন্যান্য সরকারি কর্মচারী ।

কেন্দ্রীয় সচিবালয়ের দুটি ভাগ রয়েছে । এগুলি হল— মন্ত্রক ( Ministries ) এবং দপ্তর ( Department ) । মন্ত্রকের রাজনৈতিক প্রধান হলেন মন্ত্রী । মন্ত্রকের প্রশাসনিক প্রধান হলেন সচিব । মন্ত্রকের কাজকর্মকে সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য কয়েকটি দপ্তরে ভাগ করা হয় । প্রতিটি দপ্তরের প্রধান হিসেবে একজন সচিব থাকেন । এই দপ্তরগুলির অধীনে কয়েকটি প্রশাসনিক সংস্থা কাজ করে । এগুলি হল বিভাগ ( Wing ) , শাখা ( Division ) , উপশাখা ( Branch ) এবং নিম্ন শাখা ( Section ) । 

কেন্দ্রীয় সচিবালয় এর কাজ : 

কেন্দ্রীয় সচিবালয় ভারতের কেন্দ্রীয় প্রশাসনে যেসব গুরুত্বপূর্ণ কাজ করে থাকে সেগুলি হল— 

1. সরকারি নীতি নির্ধারণে মন্ত্রীদের সাহায্য করা ; 

2. প্রয়োজনীয় তথ্যাদি সংগ্রহ ও সরবরাহ করে তথ্য ভাণ্ডার হিসেবে কাজ করা ; 

3. পরিকল্পনা কমিশন ও অর্থ কমিশনের সঙ্গে সংযোগ রক্ষা ; 

4. প্রশাসনের যে কোনো সমস্যা পুঙ্খানুপুঙ্খ রূপে খতিয়ে দেখে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রীর কাছে মতামত জ্ঞাপন ইত্যাদি । এ ছাড়া ক্ষেত্রগত পরিকল্পনা ও বিভিন্ন প্রকল্প রূপায়ণের ব্যাপারে সচিবালয় কেন্দ্রীয় সরকারকে সাহায্য করে থাকে । সচিবালয়কে ‘ চিন্তার ভাণ্ডার ‘ ( Think Tank ) আখ্যা দেওয়া হয় । সচিবালয়ের জ্ঞান ও অভিজ্ঞতার ভাণ্ডার কেন্দ্রীয় প্রশাসনের কর্মকুশলতা ও গতিশীলতা বৃদ্ধিতে সাহায্য করে । 

সংযুক্ত ও অধস্তন কার্যালয় 

ভারতের কেন্দ্রীয় প্রশাসনের অন্যতম বৈশিষ্ট্য হল বিভিন্ন মন্ত্রকের অধীনস্থ সাহায্যকারী সংগঠনগুলির উপস্থিতি । এদের মধ্যে রয়েছে সংযুক্ত কার্যালয় ও অধস্তন কার্যালয় । 

সংশ্লিষ্ট মন্ত্রককে কৌশলগত পরামর্শ দিয়ে থাকে সংযুক্ত কার্যালয় । কৌশলগত তথ্য ভাণ্ডার হিসেবে সংযুক্ত কার্যালয় যে কোনো নীতি গ্রহণ ও তার খসড়া প্রস্তুত করার জন্য প্রয়োজনীয় তথ্য , পূর্ব অভিজ্ঞতা লব্ধ জ্ঞান এবং কৌশলগত ও অন্যান্য তথ্যাদি সরবরাহ দ্বারা কেন্দ্রীয় সচিবালয়কে সমৃদ্ধ করে । 

কেন্দ্রীয় প্রশাসনের সর্বনিম্ন স্তরে রয়েছে অধস্তন কার্যালয় । সংযুক্ত কার্যালয়গুলির অধীনে থেকে এরা কাজ করে থাকে । কেন্দ্রীয় প্রশাসনে সরকারি নীতি ও সিদ্ধান্তকে যথাযথভাবে রূপায়িত করার দায়িত্ব অধস্তন কার্যালয়গুলি পালন করে । 

উপসংহার 

ভারতের কেন্দ্রীয় প্রশাসনে রাজনৈতিক ও অরাজনৈতিক প্রশাসকদের ভূমিকা সমান গুরুত্বপূর্ণ । তবে কেন্দ্রীয় প্রশাসন পরিচালনার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী ও তাঁর মন্ত্রীসভার যোগ্য নেতৃত্বদানের বিষয়টি প্রশাসনিক সাফল্যের একটি প্রধান উপাদান হিসেবে কাজ করে ।

error: Content is protected !!