ভারতের রাজনীতিতে আঞ্চলিক দল ব্যবস্থার ভূমিকা 

ভারতের রাজনীতিতে আঞ্চলিক দল ব্যবস্থার ভূমিকা 

ভারতের সংসদীয় শাসন ব্যবস্থায় আঞ্চলিক রাজনৈতিক দলের একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে । ১৯৮৯ সালে লোকসভার নবম সাধারণ নির্বাচনের পর থেকে ভারতে ‘ কৰ্তৃত্ব যুক্ত একদল প্রধান রাজনৈতিক ব্যবস্থা ‘ -র ( Dominant Party System ) অবসান ঘটে , সূত্রপাত হয় জোট রাজনীতির । নতুন পরিস্থিতিতে আঞ্চলিক দলগুলি হয়ে ওঠে বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ । 

সাম্প্রতিককালে ভারতের সাধারণ নির্বাচনগুলিতে কোনো দল একক নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা না পাওয়ায় ত্রিশঙ্কু লোকসভায় আঞ্চলিক দলগুলির গুরুত্বের প্রতিষ্ঠা অনিবার্য হয়ে দাঁড়িয়েছে । 

আঞ্চলিক দলগুলির গুরুত্ব 

ভারতের রাজনীতিতে আঞ্চলিক দলগুলির গুরুত্ব নানান দিক থেকে স্বীকৃতি লাভ করেছে । এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য কয়েকটি দিক হল— 

যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোর সমৃদ্ধিতে সহায়ক

ভারত এক বিশাল বৈচিত্র্যপূর্ণ সংস্কৃতির গণতান্ত্রিক দেশ । আঞ্চলিক বৈশিষ্ট্য সংরক্ষণের বিষয়টি মাথায় রেখেই ভারতীয় রাজনৈতিক ব্যবস্থায় যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামো গ্রহণ করা হয় । আঞ্চলিক দলগুলি দেশের বহু বৈচিত্র্যপূর্ণ আর্থ-সামাজিক তথা রাজনৈতিক জীবনযাত্রার প্রতিনিধিত্ব করে থাকে । 

কোনো জাতীয় দলের পক্ষে দেশের নানা অঞ্চলে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা এই বহু বৈচিত্র্যপূর্ণ জীবনধারার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সংযোগ রক্ষা করে চলা সম্ভব নয় । এক্ষেত্রে আঞ্চলিক দলগুলির ইতিবাচক ভূমিকা ভারতের যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোর সমৃদ্ধির পক্ষে সহায়ক ভূমিকা পালন করে ।

ভাষা ও সংস্কৃতিগত উত্তরাধিকারকে সুরক্ষা প্রদানকারী

ভারতের আঞ্চলিক রাজনৈতিক দলগুলি ভারতের বিপুল বৈচিত্র্যপূর্ণ আঞ্চলিক ভাষা ও সংস্কৃতির উত্তরাধিকারকে সুরক্ষিত রাখতে সাহায্য করে বলে অনেকে মনে করেন । কেন্দ্রীয় ও রাজ্য স্তরে প্রাধান্য স্থাপনকারী গোষ্ঠী বহুক্ষেত্রে নিজেদের ভাষা ও সংস্কৃতিকে চাপিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেছে । 

এই পটভূমিকায় আঞ্চলিক দলগুলি স্থানীয় ভাষা ও সংস্কৃতির অধিকার রক্ষায় প্রতিরোধ গড়ে তুলে গঠনমূলক ভূমিকা পালন করেছে । দৃষ্টান্ত স্বরূপ তামিলনাড়ুর ডি. এম. কে. এবং এ. আই.এ.ডি.এম.কে. দলের কথা বলা যায় । 

জাতীয় স্তরে আঞ্চলিক সমস্যার উত্থাপক 

জাতীয় রাজনৈতিক দলগুলি জাতীয় সমস্যাগুলির প্রতি বেশি গুরুত্ব দেওয়ার ফলে আঞ্চলিক দাবিদাওয়াগুলি উপেক্ষিত হয় । একমাত্র আঞ্চলিক দলগুলি দেশের নানান আঞ্চলিক সমস্যা ও দাবিদাওয়াকে জাতীয় স্তরে তুলে ধরে । এইভাবে আঞ্চলিক বৈষম্য ও অনগ্রসরতা দূর করার ক্ষেত্রে আঞ্চলিক দলগুলি এক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে ।

প্রাধান্যমূলক একদলীয় ব্যবস্থার অবসানে উদ্যোগী 

ভারতীয় দলব্যবস্থা দীর্ঘকাল যাবৎ কংগ্রেস মূলের প্রাধানামূলক একদলীয় ব্যবস্থার অধীনে ছিল । এর ফলে আঞ্চলিক স্বাতস্থ্যের দাবি উপেক্ষিত হয় । প্রতিপত্তিশালী একদলীয় শাসন অঙ্গরাজ্যগুলির স্বাধিকার রক্ষার প্রশ্নেও নেতিবাচক ভূমিকা পালন করে । এই পরিস্থিতিতে আঞ্চলিক সবাগুলি ভারতীয় সংসদীয় রাজনীতিতে একদলীয় কর্তৃত্বের অবসান ঘটাতে এক সক্রিয় উদ্যোগ নেয় ।

error: Content is protected !!