সামাজিক ও কৃষ্টিগত অধিকার 

সামাজিক ও কৃষ্টিগত অধিকার 

সামাজিক ও সাংস্কৃতিক জীবনের বিকাশের জন্য যেসব সুযোগ সুবিধা একান্তভাবে অপরিহার্য তাদের সামাজিক ও কৃষ্টিগত অধিকার বলা হয় । গুরুত্বপূর্ণ সামাজিক ও কৃষ্টিগত অধিকারগুলি হল— 

সামাজিক সাম্যের অধিকার 

স্ত্রী পুরুষ ধর্ম-বর্ণ-জাতি নির্বিশেষে সমস্ত নাগরিকের সামাজিক দিক থেকে সাম্যের অধিকার সর্বজনীনভাবে স্বীকৃত । আসলে সামাজিক বৈষম্য বজায় থাকলে রাষ্ট্রের অর্থনৈতিক পরিকল্পনা ও উন্নয়ন সঠিকভাবে রূপায়িত হতে পারে না ।

সুস্থ জীবন যাপনের অধিকার 

সুস্থ সামাজিক পরিবেশে জীবন যাপনের অধিকার নাগরিকদের একটি সামাজিক অধিকার । কারণ সমাজ জীবনে অসুস্থ পরিবেশ থাকলে ব্যক্তির অসামাজিক কাজকর্মে জড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা থাকে । সুস্থ সামাজিক পরিবেশে সুস্থ সংস্কৃতি গড়ে ওঠে , যা নাগরিক জীবনের সুপ্ত গুণাবলির বিকাশের পক্ষে একান্ত উপযোগী ।

স্বাস্থ্য রক্ষার অধিকার 

প্রতিটি রাষ্ট্রে নাগরিকরা যাতে সুস্থ দেহের অধিকারী হতে পারে তার সুব্যবস্থা করা রাষ্ট্রের একান্ত কর্তব্য । রুণ এবং দুর্বল মানব সম্পদ কোনো রাষ্ট্রের উন্নয়নের পক্ষে অনুকূল নয় । তাই স্বাস্থ্যরক্ষার অধিকারকে সুনিশ্চিত করা রাষ্ট্রের একটি অপরিহার্য কর্তব্য । 

শোষণ মুক্তির অধিকার 

মানব সমাজের ইতিহাসে শোষণ এক অভিশাপ । শোষণের নানান রূপ আছে । তৃতীয় বিশ্বের দেশসহ উন্নত বিশ্বে আজও শিশুশ্রম সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ হয়নি । শিশুরা বিভিন্ন কাজে বিভিন্নভাবে শোষিত হয় । কোথাও আবার বিনা পারিশ্রমিকে কাজ করিয়ে নেওয়ার রীতি অর্থাৎ বেগার শ্রম চালু রয়েছে । রাষ্ট্রের কর্তবা প্রতিটি ব্যক্তির শোষণ মুক্তির অধিকারকে স্বীকৃতি দেওয়া । 

ভাষা ও সংস্কৃতির অধিকার 

প্রতিটি ব্যক্তির নিজস্ব ভাষা ও সংস্কৃতির অধিকার সর্বজনস্বীকৃত । তাই রাষ্ট্রের কর্তব্য হল জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে প্রতিটি সম্প্রদায়ের ভাষা ও সংস্কৃতিকে বিকশিত হওয়ার সুযোগ দেওয়া ।

error: Content is protected !!