আইনের সংজ্ঞা দাও

আইনের সংজ্ঞা দাও

ব্যাপক এবং সংকীর্ণ , উভয় অর্থেই আইন কথাটি ব্যবহৃত হয় । ব্যাপক অর্থে আইন বলতে সামাজিক , নৈতিক , প্রাকৃতিক ও ধর্মীয় আইনকে বোঝায় । রাষ্ট্রবিজ্ঞানে কিন্তু আইন শুধুমাত্র সংকীর্ণ অর্থে ব্যবহৃত হয় । রাষ্ট্রবিজ্ঞানে আইন হল সেইসব নিয়মকানুন যা রাষ্ট্র তৈরি করে এবং স্বীকৃতি দেয় । রাষ্ট্রের বলবৎ করা এই আইনকে অমান্য করলে শাস্তি পেতে হয় । রাষ্ট্রবিজ্ঞানীরা বিভিন্ন দৃষ্টিকোণ থেকে আইনের সংজ্ঞা দিয়েছেন । নীচে সেগুলি আলোচনা করা হল— 

অস্টিন ও হল্যান্ডের সংজ্ঞা 

জন অস্টিনের মতে , আইন হল সার্বভৌমের আদেশ । অস্টিন আইনকে অধস্তনের প্রতি ঊর্ধ্বতন রাষ্ট্রনৈতিক কর্তৃপক্ষের আদেশ বলে অভিহিত করেছেন । বিশ্লেষণপন্থী লেখক হল্যান্ডের মতে , আইন হল সার্বভৌম রাষ্ট্রনৈতিক কর্তৃত্ব দ্বারা বলবৎ করা সেই নিয়ম যা মানুষের বাহ্যিক আচার-আচরণকে নিয়ন্ত্রণ করে ।

ঐতিহাসিক মতবাদীদের অভিমত 

স্যাভিনি , হেনরি মেইন , মেইটল্যান্ড , ক্লার্ক প্রমুখ ঐতিহাসিক মতবাদে বিশ্বাসী রাষ্ট্রবিজ্ঞানীর মতে সমাজে প্রচলিত রীতিনীতি , প্রথা ইত্যাদি সাধারণভাবে আইনের মতো মর্যাদা লাভ করে । তাই সব আইনকে সার্বভৌম শক্তির আদেশ বলে অভিহিত করা যুক্তিযুক্ত নয় । এই শ্রেণির রাষ্ট্রবিজ্ঞানীদের মতে , সাধারণের সম্মতি এবং রাষ্ট্রীয় কর্তৃত্ব উভয়ে মিলে আইনের সৃষ্টি করে । 

সমাজবিজ্ঞানীদের অভিমত 

দ্যুগুই , ক্লাবে প্রমুখ সমাজবিজ্ঞানী মনে করেন যে নানারকম সামাজিক কারণ ও প্রভাবের ফলেই আইনের সৃষ্টি হয় । তাঁদের মতে , আইন সমাজের কল্যাণ সাধন করে বলেই মানুষ তা মেনে চলে । 

উইলসনের সংজ্ঞা 

উপরিউক্ত পরস্পর বিরোধী মতবাদগুলির সমন্বয় সাধন করে মার্কিন রাষ্ট্রপতি উইলসন আইনের একটি গ্রহণযোগ্য সংজ্ঞা দিতে গিয়ে এই অভিমত প্রকাশ করেছেন , আইন হল মানুষের স্থায়ী আচার , ব্যবহার ও চিন্তার সেই অংশ যা রাষ্ট্র কর্তৃক স্বীকৃত বিধিতে পরিণত হয়েছে এবং যার পিছনে রাষ্ট্রীয় কর্তৃত্বের সুস্পষ্ট সমর্থন আছে । 

বার্কারের অভিমত 

বার্কারের অভিমত হল , আইন শুধুমাত্র রাষ্ট্র কর্তৃক স্বীকৃত , ঘোষিত এবং প্রযুক্ত হলেই চলবে না , তাকে ন্যায়সংগত ও যুক্তিসংগত হতে হবে । তাঁর মতে আদর্শ আইনের দুটি উপাদান— 

( i ) বৈধতা এবং 

( ii ) নৈতিক মূল্য । 

বৈধতা বলতে বোঝায় আইনটি রাষ্ট্র কর্তৃক অনুমোদিত , ঘোষিত এবং প্রযুক্ত ; অন্যদিকে নৈতিক মূল্যের অর্থ হল আইনটি ন্যায়বোধের ওপর প্রতিষ্ঠিত । তবে বার্কার স্বীকার করেছেন যে , আইন শুধুমাত্র বৈধ হলেই সকলে তা মানতে বাধ্য । আইন সম্পর্কে প্রচলিত সংজ্ঞাগুলির ভিত্তিতে বলা যায় – 

( i ) আইন হল এমন কতকগুলি বিধিবদ্ধ নিয়ম যা সবাই মেনে চলে । 

( ii ) আইন হল সুস্পষ্ট , সুনির্দিষ্ট এবং সর্বজনীন । 

( iii ) আইনের চোখে সবাই সমান ।

( iv ) সার্বভৌম কর্তৃপক্ষ আইনকে বলবৎ করে এবং আইন ভঙ্গকারীকে শাস্তি দেয় । 

( v ) সমাজের শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য আইন অপরিহার্য । 

( vi ) আইন সমাজের কল্যাণ সাধন করে বলেই মানুষ তা মেনে চলে । 

মার্কসীয় অভিমত 

মার্কসীয় মতবাদ অনুযায়ী , আইন রাষ্ট্রপ্রকৃতির সঙ্গে অভিন্নভাবে জড়িত । সমাজের প্রচলিত উৎপাদন সম্পর্ককে বজায় রাখার জন্য রাষ্ট্র আইন তৈরি করে । আইন শাসক শ্রেণির ইচ্ছাকে প্রতিফলিত করে ।

error: Content is protected !!