ভারতে পাট শিল্পের সমস্যা

ভারতে পাট শিল্পের সমস্যা

বর্তমানে ভারতের পাট শিল্প কতকগুলি সমস্যার সম্মুখীন । এগুলির মধ্যে প্রধান হল— 

বাজারে বিকল্প তন্তুর আগমন :

কাপড়ের থলে , কাগজের ব্যাগ , পলিথিন , প্লাস্টিক প্রভৃতি বিকল্প তন্তু বাজারে আসার ফলে পাটের বাজার অনেকটা সংকুচিত হয়েছে । 

আন্তর্জাতিক বাজারে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতা :

বর্তমানে রপ্তানি বাণিজ্যে বাংলাদেশ এবং থাইল্যান্ড ভারতের তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বী । বাংলাদেশের পাট খুবই উৎকৃষ্ট মানের এবং পাটকলগুলিও নতুন । এজন্য বাংলাদেশ সস্তায় ভালো জিনিস উৎপাদন করতে পারে । 

পুরোনো যন্ত্রপাতি :

ভারতের অধিকাংশ পাটকল চালু হয়েছে সেই ইংরেজ আমলে । ওইসব পুরোনো যন্ত্রপাতি দিয়ে উন্নত ধরনের ভালো জিনিস তৈরি করা যায় না । 

রপ্তানি শুল্কের উচ্চহার :

পাটজাত দ্রব্য রপ্তানি করতে হলে সরকারকে খুব বেশি রপ্তানি শুল্ক দিতে হয় । এজন্য পাটজাত দ্রব্যের দাম বেড়ে যায় ।

পরিচালন ব্যবস্থার ত্রুটি ও শ্রমিক অসন্তোষ :

পরিচালন ব্যবস্থার ত্রুটি এবং শ্রমিক অসন্তোষের জন্য প্রায়শই পাটকলগুলিতে ‘ লক আউট ’ , ‘ লে অফ ’ ঘোষণা করা হয় । 

পাট শিল্পের প্রতি অবহেলা :

পাট শিল্পের প্রতি পাটকল মালিকদের চূড়ান্ত অবহেলার ফলে পার্ট শিল্পের সমস্যা আরও গভীর হয়েছে । এইসব বিভিন্ন কারণে বিগত কয়েক বছরে বেশ কয়েকটি পাটকল সম্পূর্ণ বন্ধ হয়ে গেছে এবং পশ্চিমবঙ্গ তথা ভারতের পাট শিল্প তার পূর্ব গৌরব অনেকটাই হারিয়েছে । 

ভারতে পাট শিল্পের সমস্যার সমাধানে গৃহীত ব্যবস্থা

পাট শিল্পের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের জন্য বর্তমানে কিছু কিছু ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে , যেমন— 

( ১ ) পাটজাত দ্রব্যের উৎকর্ষ বাড়ানোর জন্য উন্নত মানের পাট চাষ করার ব্যবস্থা হয়েছে এবং এজন্য ‘ পাট উন্নয়ন পরিষদ ‘ গঠিত হয়েছে । 

( ২ ) নতুন নতুন যন্ত্রপাতি বসিয়ে পাটকলগুলির আধুনিকীকরণের জন্য সরকার উদার হস্তে ঋণদানের ব্যবস্থা করেছেন । 

( ৩ ) পাটজাত দ্রব্যের রপ্তানি বাড়ানোর জন্য রপ্তানি শুল্ক কমানো হয়েছে এবং ‘ রপ্তানি প্রসার কমিটি ’ গঠন করা হয়েছে । 

( ৪ ) পাট থেকে শুধু চট , থলে বা দড়ি নয় , নতুন নতুন সামগ্রী , যেমন — পাট বস্ত্র , কাগজ , কার্পেট , ঘর সাজানোর শৌখিন দ্রব্য প্রভৃতি তৈরির মাধ্যমে পাটজাত সামগ্রীর চাহিদা বা বাজার বাড়ানোর জন্য গবেষণা শুরু হয়েছে । 

( ৫ ) অভ্যন্তরীণ বাজারে পাটজাত সামগ্রীর ব্যবহার বাড়ানোর উদ্দেশ্যে সিমেন্ট শিল্প সহ আরও কয়েকটি শিল্পে চটের ব্যাগের ব্যবহার আবশ্যিক করার প্রচেষ্টা শুরু হয়েছে ।

error: Content is protected !!