আইসবার্গের সন্ধি

আইসবার্গের সন্ধি

দীর্ঘ ন’বছর পঞ্চম চার্লস ও প্রোটেস্ট্যান্টদের মধ্যে যুদ্ধ চলার পর 1555 খ্রিস্টাব্দে আইসবার্গের সন্ধির মাধ্যমে যুদ্ধের অবসান ঘটে । এই সন্ধি অনুযায়ী স্থির হয় — 

1. জার্মান শাসকগণ তাদের পছন্দমত ধর্মমত প্রবর্তন করতে পারবেন । 

2. রাজার ধর্ম প্রজার ধর্ম হিসাবে বিবেচিত হবে । 

3. লুথার প্রবর্তিত প্রোটেস্টান্ট ধর্মমত আইনগত স্বীকৃতি পায় । ‘ রাজার ধর্ম প্রজার ধর্ম ’ এই নীতি গৃহীত হবার ফলে প্রোটেস্টান্ট ধর্মের নৈতিক জয় হয় এবং জার্মানিতে রোমান সম্রাটের কর্তৃত্ব মুক্ত হয়ে স্বাধীন রাজতন্ত্রের উদ্ভব ঘটে ।

আরো পড়ুন : ধর্ম সংস্কার আন্দোলনে মার্টিন লুথারের ভূমিকা 

ইউরোপের ধর্ম সংস্কার আন্দোলনের কারণ

মুন্ডা বিদ্রোহের কারণ

error: Content is protected !!