ভৌত বিজ্ঞান

সমযোজ্যতা কাকে বলে

সমযোজ্যতা কাকে বলে  

রাসায়নিক বিক্রিয়ার সময় নিকটতম নিষ্ক্রিয় গ্যাসের পরমাণুর মতো ইলেকট্রন বিন্যাস লাভের চেষ্টায় একই বা ভিন্ন মৌলের দুটি পরমাণু ওদের সর্ববহিস্থ কক্ষ থেকে সমসংখ্যক ইলেকট্রন যৌথভাবে ব্যবহার করে এক বা একাধিক ইলেকট্রন জোড় গঠনের মাধ্যমে রাসায়নিক বন্ধন সৃষ্টি করে । এইরূপে রাসায়নিক বন্ধন ঘটানোর ক্ষমতাকে সমযোজ্যতা বলে । 

সমযোজ্যতা এর উদাহরণ : 

হাইড্রোজেন অণুর গঠন

হাইড্রোজেন অণুর গঠন— হাইড্রোজেন পরমাণুতে একটিমাত্র ইলেকট্রন থাকে । হাইড্রোজেন অণু গঠনের সময় দুটি হাইড্রোজেন পরমাণু প্রত্যেকে তার একটিমাত্র ইলেকট্রন দিয়ে 1 টি ইলেকট্রন জোড় গঠন করে । এই ইলেকট্রন জোড়কে দুটি পরমাণু সমভাবে ব্যবহার করে নিকটবর্তী নিষ্ক্রিয় গ্যাস হিলিয়ামের মতো সুস্থিত ইলেকট্রন বিন্যাস লাভ করে H2 অণু গঠন করে । একটি ইলেকট্রন জোড় গঠন করার জন্য হাইড্রোজেনের যোজ্যতা 1 হয় । 

error: Content is protected !!