ভৌত বিজ্ঞান

নিউক্লিয় সংযোজন কাকে বলে

নিউক্লিয় সংযোজন কাকে বলে

যে নিউক্লিয় বিক্রিয়ায় একাধিক হালকা নিউক্লিয়াস সংযোজিত হয়ে অপেক্ষাকৃত ভারী নিউক্লিয়াস গঠিত হয় , তাকে নিউক্লিয় সংযোজন বলে । 

সুতরাং , নিউক্লিয় সংযোজনকে নিউক্লিয় বিভাজনের বিপরীত প্রক্রিয়া বলা যায় । নিউক্লিয় সংযোজনের ফলেও প্রচুর শক্তি মুক্ত হয় । বিভাজন প্রক্রিয়া অপেক্ষা এখানে উদ্ভূত শক্তির পরিমাণ অনেক গুণ বেশি হয় । 

নিউক্লিয় সংযোজন এর উদাহরণ : 

নিউক্লিয় সংযোজনের ফলে 4 টি হাইড্রোজেন নিউক্লিয়াস সংযোজিত হয়ে একটি হিলিয়াম নিউক্লিয়াস গঠন করে । এটি নিম্নলিখিত সমীকরণ অনুযায়ী হবে— 

41H12He4 + 2+1e0 (পজিট্রন) + 25.69 MeV

হিলিয়াম নিউক্লিয়াস ও 2 টি পজিট্রনের মোট ভর চারটি হাইড্রোজেন নিউক্লিয়াসের মোট ভর অপেক্ষা সামান্য কম হয় । এই হ্রাস প্রাপ্ত ভর আইনস্টাইনের সূত্রানুযায়ী শক্তিতে রূপান্তরিত হয় । প্রমাণ করা যায় যে মাত্র 1 গ্রাম 1H1 এর সংযোজনে প্রায় 6.3 × 1011 জুল শক্তি মুক্ত হয় । এটি 1 গ্রাম ইউরেনিয়ামের বিভাজনে মুক্ত শক্তি অপেক্ষা প্রায় 7.3 গুণ বেশি । 

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য , নিউক্লীয় সংযোজন ঘটাতে প্রায় 107 কিংবা 108 ডিগ্রি সেলসিয়াস উষ্ণতার প্রয়োজন । সাধারণ কোনো উপায়ে এত উচ্চ উষ্ণতা সৃষ্টি করা সম্ভব নয় । একমাত্র নিউক্লীয় বিভাজন দ্বারাই এত উচ্চ উষ্ণতা সৃষ্টি করা সম্ভব । তাই নিউক্লিয় সংযোজনের আগে নিউক্লীয় বিভাজন ঘটানো হয় । নিউক্লিয় সংযোজনের জন্যই সূর্য ও নক্ষত্রগুলিতে অবিরত প্রচণ্ড শক্তির সৃষ্টি হয়

error: Content is protected !!