প্রতিবিম্ব কাকে বলে

প্রতিবিম্ব কাকে বলে

কোনো বিন্দু উৎস থেকে আগত অপসারী আলোকরশ্মিগুচ্ছ প্রতিফলিত বা প্রতিসৃত হয়ে যদি অন্য কোনো বিন্দুতে মিলিত হয় অথবা অন্য কোনো বিন্দু থেকে অপসৃত হচ্ছে বলে মনে হয় , তবে ওই দ্বিতীয় বিন্দুকে প্রথম বিন্দুর প্রতিবিম্ব বলে । 

প্রতিবিম্ব কত প্রকার

প্রতিবিম্ব দুই প্রকার — সদবিম্ব ও অসদ বিম্ব  । 

সদবিম্ব কাকে বলে

কোনো বিন্দু উৎস থেকে আগত অপসারী আলোকরশ্মিগুচ্ছ প্রতিফলিত বা প্রতিসৃত হয়ে যদি অন্য কোন বিন্দুতে মিলিত হয় , তবে দ্বিতীয় বিন্দুটিকে প্রথম বিন্দুর সদবিম্ব বলা হয় । 

সদবিম্বকে চোখে দেখা যায় এবং পর্দায় ফেলা যায় । সাধারণত উত্তল লেন্স এবং অবতল দর্পণ বস্তুর সদবিম্ব গঠন করে ।

SODBIMBO
সদবিম্ব কাকে বলে

L একটি উত্তল লেন্স । P বিন্দু আলোক উৎস । P থেকে অপসারী আলোকরশ্মিগুচ্ছ উত্তল লেন্সের মধ্যে দিয়ে প্রতিসৃত হয়ে P’ বিন্দুতে মিলিত হয় । অতএব , P’ বিন্দু হল P বিন্দুর সদ প্রতিবিম্ব । 

অসদ বিম্ব কাকে বলে

কোনো বিন্দু উৎস থেকে আগত অপসারী আলোকরশ্মিগুচ্ছ প্রতিফলিত বা প্রতিসৃত হয়ে যদি অন্য কোনো বিন্দু থেকে অপসৃত হচ্ছে বলে মনে হয় , তবে ওই দ্বিতীয় বিন্দুটিকে প্রথম বিন্দুর অসদ বিম্ব বা অসদ প্রতিবিম্ব বলা হয় । 

অসদ বিম্বকে চোখে দেখা যায় , কিন্তু পর্দায় ফেলা যায় না । সমতল দর্পণে অসদ প্রতিবিম্ব গঠিত হয় । 

images1
অসদ বিম্ব কাকে বলে

MM’ দর্পণের সামনে P একটি বিন্দু উৎস । P উৎস থেকে নির্গত রশ্মি PO এবং PQ দর্পণে প্রতিফলনের পর OB এবং QR পথে যায় । এই প্রতিফলিত রশ্মিদ্বয়কে পিছনের দিকে বাড়ালে P’ বিন্দুতে মিলিত হয় । এর ফলে মনে হয় , P’ বিন্দু থেকে প্রতিফলিত রশ্মি দুটি অপসৃত হচ্ছে । সুতরাং , P’ বিন্দু হল P বিন্দুর অসদ প্রতিবিম্ব ।

error: Content is protected !!