তরুক্ষীর কাকে বলে

তরুক্ষীর কাকে বলে

কোনো কোনো উদ্ভিদে প্রোটিন , শর্করা , গঁদ , রজন , উপক্ষার প্রভৃতির মিশ্রণে তৈরি জলের মতো কিংবা দুধের মতো কিংবা হলুদ বর্ণের নাইট্রোজেন বিহীন যে রেচন পদার্থ ক্ষীরকোশ বা ক্ষীরনালিতে জমা থাকে তাকে তরুক্ষীর বলে । 

উদাহরণ : পেঁপে , বট , রবার , ডুমুর , করবী , আকন্দ , কলা প্রভৃতির আঠা । 

তরুক্ষীর এর উৎস :

 পেঁপে , আকন্দ , বট , কঁঠাল , ডুমুর , করবী , রবার , রেড়ি তামাক , কলা , শিয়াল কাঁটা , রাংচিতা প্রভৃতি উদ্ভিদ । 

তরুক্ষীর এর প্রকৃতি

( i ) প্রোটিন , শর্করা , গঁদ , রজন , উপক্ষার মিশ্রিত অবদ্রব । 

( ii ) ক্ষীরকোশে ( যেমন করবী উদ্ভিদ ) বা ক্ষীরনালিতে ( যেমন তামাক উদ্ভিদ ) থাকে । 

( iii ) বর্ণহীন জলের মতো কিংবা দুধের মতো সাদা কিংবা ইষৎ হলুদ বর্ণের ।

তরুক্ষীর এর প্রকারভেদ

বর্ণহীন জলের মতো : কলা , তামাক প্রভৃতি উদ্ভিদের তরুক্ষীর ।

দুধের মতো সাদা : পেঁপে , আকন্দ , বট , কাঁঠাল প্রভৃতি উদ্ভিদের তরুক্ষীর ।

হলুদ বর্ণের : শিয়াল কাঁটা , আফিং প্রভৃতি উদ্ভিদের তরুক্ষীর ।

তরুক্ষীর এর অর্থকরী গুরুত্ব 

( i ) রাবার গাছের তরুক্ষীর থেকে বাণিজ্যিক রবার , টায়ার , টিউব ও বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম প্রস্তুত হয় । 

( ii ) পাইপ , বর্ষাতি , জুতো , ফুটবল – ব্লাডার , টেলিফোন রিসিভার প্রভৃতির প্রস্তুতিতে তরুক্ষীরের ব্যবহার হয়ে থাকে । 

( iii ) নানা ধরনের খেলনা , সাইকেল , মোটর , এরোপ্লেন প্রভৃতির নির্মাণে তরুক্ষীর অপরিহার্য । 

( iv ) পেঁপের তরুক্ষীর প্যাপাইন ( এক ধরনের উৎসেচক ) প্রোটিন পরিপাকে সাহায্য করে ।

error: Content is protected !!