উপক্ষার কাকে বলে

উপক্ষার কাকে বলে

কোনো কোনো উদ্ভিদে প্রোটিন বিশ্লিষ্ট হয়ে , জলে অদ্রবণীয় কঠিন বা তরল , কষা স্বাদ বিশিষ্ট নাইট্রোজেন যুক্ত যে রেচন পদার্থ সৃষ্টি হয় তাকে উপক্ষার বলে । 

উপক্ষারের উদাহরণ :

উদ্ভিদের নামসৃষ্ট উপক্ষার
সর্পগন্ধারেসারপিন
তামাকনিকোটিন
ইপিকাকএমিটিন
আফিংমরফিন
কুঁচেলা ( নাক্স ভমিকা )স্ট্রিকনিন
ডিজিটালিসডিজিটালিন
কাটবিশএকোনাইট
সিনকোনাকুইনাইন
বেলেডোনাআট্রোপিন
চাথেইন
কফিক্যাফিন
কোকোকোকেইন
ধুতুরাডাটুরিন
এফিড্রাএফিড্রিন

উপক্ষারের প্রকৃতি

( i ) নাইট্রোজেন যুক্ত উপক্ষার । 

( ii ) প্রোটিন বিশ্লিষ্ট হয়ে সৃষ্টি হয় । 

( iii ) তরল বা কঠিন । 

( iv ) জলে অদ্রবণীয় কিন্তু কোহলে দ্রবণীয় । 

( v ) কষা বা তিক্ত স্বাদ বিশিষ্ট ।

উপক্ষারের উৎস

উদ্ভিদের মূল ( সর্পগন্ধা , বেলেডোনা ) , ছাল বা বাকল ( সিনকোনা , সর্পগন্ধা ) কাণ্ড ( তামাক , ইপিকাক ) , পাতা ( তামাক , চা , বেলেডোনা , কোকো , ডিজিটালিস ধুতুরা ) , ফল ( ধুতুরা , আফিং ) , ও বীজ ( কুঁচেলা , কফি ) ।

উপক্ষারের অর্থকরী গুরুত্ব

রেসারপিন ( i ) উচ্চ রক্তচাপ ও ( ii ) মানসিক ব্যাধি নিরাময়ের ঔষধ প্রস্তুত হয় । 

কুইনাইন ম্যালেরিয়া নিরাময়ের ঔষধ প্রস্তুত হয় । 

এফিড্রিন স্নায়ুতন্ত্রকে উদ্দীপ্ত করতে ও মাদকাসক্ত করণে ব্যবহৃত হয় । 

নিকোটিন ( i ) চোখের তারার প্রসারণে , ( ii ) রক্তচাপ বৃদ্ধিতে এবং ( ii ) সিমপ্যাথেটিক স্নায়ুকে উদ্দীপ্ত করতে প্রয়োজনীয় ঔষধ প্রস্তুতে লাগে । 

এমিটিন বমি , পেটের অসুখ ( আমাশয় ) প্রভৃতির নিরাময়ের ঔষধ প্রস্তুতে লাগে ।

থেইন অবসাদ দূরীকরণে কার্যকরী । 

মরফিন ব্যথা ও যন্ত্রণা উপশমের এবং গাঢ় নিদ্রার ঔষধ প্রস্তুতে ব্যবহৃত হয় । 

ক্যাফিন ব্যথা বেদনা উপশমে এবং মস্তিষ্কের সক্রিয়তা রক্ষার ঔষধ প্রস্তুতে দরকার হয় । 

ট্রিকনিন পেটের অসুখের এবং স্নায়ু উত্তেজনার ঔষধ প্রস্তুতে প্রয়োজন হয় । 

কোকেইন ব্যথা বেদনা উপশমে ব্যবহৃত হয় । 

ডিজিটালিন হৃৎপিণ্ডের কর্ম দক্ষতা ফেরানোর ঔষধ প্রস্তুতে লাগে । 

ডাটুরিন হাঁপানি রোগ প্রশমনে ব্যবহৃত হয় । 

একোনাইট বাতজ বেদনা ও জ্বর প্রশমনে কার্যকরী । 

এফিড্রিন হাঁপানি , শ্বাসনালির প্রদাহ এবং সর্দি-কাশি প্রভৃতি রোগ নিরাময়ে ব্যবহৃত হয় ।

error: Content is protected !!