যৌন জনন কাকে বলে

যৌন জনন কাকে বলে

যে জনন প্রক্রিয়ায় দুটি ভিন্ন প্রকৃতির নিউক্লিয়াসযুক্ত জনন কোশের মিলনের ফলে জিনগত পুনঃসংযুক্তির মাধ্যমে নতুন বৈশিষ্ট্যযুক্ত অপত্য সৃষ্টি হয় , তাকে যৌন জনন বলে । 

যৌন জননের প্রকারভেদ

যৌন জনন প্রধানত দুপ্রকার হয় , যথা : ( I ) সংযুক্তি বা সংশ্লেষ এবং ( II ) সিনগ্যামি । 

সংশ্লেষ বা সংযুক্তি : 

যে জনন প্রক্রিয়া দুটি জনন কোশধারযুক্ত সমজনন কোশ বা গ্যামেটের মিলনে সম্পন্ন হয় , তাকে সংশ্লেষ বা সংযুক্তি বলে । উদা : স্পাইরােগাইরা , মিউকর । 

এই জনন প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণকারী জীবদের কনজুগ্যান্ট বলে । জনন প্রক্রিয়ার শেষে জীব দুটি পরস্পর থেকে পৃথক হয়ে যায় এবং জননের ফলে উৎপন্ন কোশ আবরণী দ্বারা আবৃত ডিপ্লয়েড কোশকে জাইগোস্পোর বলে । 

সিনগ্যামি : 

যে যৌন জনন প্রক্রিয়ায় জনন কোশধারের মিলন ছাড়াই দুটি জনন কোশ বা গ্যামেটের মিলন সম্পূর্ণভাবে এবং স্থায়ীভাবে ঘটে তাকে সিনগ্যামি বলে ।

গ্যামেটের আকার ও আয়তনের ওপর নির্ভর করে সিনগ্যামি প্রধানত তিন প্রকার হয় । যথা : ( i ) আইসোগ্যামি  ( ii ) অ্যানাইসোগ্যামি এবং ( iii ) উগ্যামি । 

আইসোগ্যামি : সিনগ্যামি প্রকৃতির যে জনন প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণকারী দুটো গ্যামেট বা দুটো জননকোশ শারীরবৃত্তীয় ও অঙ্গসংস্থানগত ভাবে একই প্রকার হয় , তাকে আইসোগ্যামি বলে । উদা : স্পাইরােগাইরা , ইউলােথ্রিক্স , মনােসিস্টিস । 

অ্যানাইসোগ্যামি : সিনগ্যামি প্রকৃতির যে জনন প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণকারী দুটো গ্যামেট বা দুটো জননকোশ আকৃতি , আয়তন ও স্বভাবগতভাবে ভিন্ন প্রকৃতির হয় , তাকে অ্যানাইসোগ্যামি বলে । এই প্রকৃতির জনন প্রক্রিয়ায় আকৃতিতে ছােটো গ্যামেটকে পুংগ্যামেট বা মাইক্রোগ্যামেট এবং আকৃতিতে বড়াে গ্যামেটকে স্ত্রী গ্যামেট বা ম্যাক্রোগ্যামেট বলে । উভয় গ্যামেট সচল হলেও মাইক্রোগ্যামেট অধিকতর সক্রিয় ও সচল হয় । ( উদা : ক্ল্যামাইডােমােনাস ) । 

উগ্যামি : সিনগ্যামি প্রকৃতির যে জনন প্রক্রিয়ায় অংশ গ্রহণকারী দুটো গ্যামেট বা দুটো জননকোশ এর মধ্যে পুং গ্যামেটটি ক্ষুদ্রাকার ও সচল হয় এবং স্ত্রী গ্যামেটটি বৃহদাকার ও নিশ্চল হয় , তাকে উগ্যামি বলে । উদা : উন্নত শ্রেণির উদ্ভিদ ও প্রাণী ।

যৌন জননের গুরুত্ব বা সুবিধা

যৌন জননের গুরুত্ব বা সুবিধাগুলি হলㅡ

( i ) যৌন জনন প্রক্রিয়ায় মিয়ােসিস কোশবিভাজনের ফলে গ্যামেট উৎপন্ন হওয়ার সময় ক্রোমােজোমে কায়াজমা ও ক্রসিংওভার ঘটে , ফলে ক্রোমােজোমের অংশ বিনিময় হয় , যা প্রকরণের সৃষ্টির মাধ্যমে জৈব অভিব্যক্তিতে সাহায্য করে । 

( ii ) যৌন জননের ফলে সৃষ্ট অপত্য জীবে জনিতৃ জীবদ্বয় থেকে বিভিন্ন বৈশিষ্ট্য একত্রিত হওয়ায় জীবদেহে বৈচিত্র্য দেখা যায় , যা জীবকে অভিযােজিত হতে সাহায্য করে জীবের অস্তিত্ব রক্ষা করে । 

যৌন জননের অসুবিধা

যৌন জননের অসুবিধাগুলি হলㅡ

( i ) যৌন জননে দুটি বিপরীত লিঙ্গের জীবের প্রয়ােজন , যা সবসময় সম্ভব নাও হতে পারে । 

( ii ) দুটো বিপরীতধর্মী গ্যামেটের মিলনের জন্য অনুকূল পরিস্থিতি থাকা প্রয়ােজন । 

( iii ) যৌন জননে দুটো বিপরীতধর্মী গ্যামেটের মিলন পদ্ধতি অত্যন্ত জটিল হওয়ায় অসংখ্য গ্যামেটের অপচয় হয় ।

error: Content is protected !!