পদ্মের অভিযােজন

পদ্মের অভিযােজন

IMG ২০২১০৭১২ ১০২২৪৯1
পদ্মের অভিযােজন

পদ্ম স্রোতহীন অগভীর জলাশয়ে জন্মায় , এদের মূল , কাণ্ড , জলতলের নীচে এবং ফুল , পাতা জলের উপরিতলে থাকে অর্থাৎ পদ্ম অর্ধনিমজ্জিত জলজ উদ্ভিদ । জলজ পরিবেশে নিজেকে উপযােগী করে তােলার জন্য পদ্মের মধ্যে নিম্নলিখিত অভিযােজনগুলি দেখা যায়— 

মূল : 

( i ) পদ্মের মূলতন্ত্র সুগঠিত নয় , ভূ-নিম্নস্থ গ্রন্থিকাণ্ড থেকে অস্থানিক মূল বের হয় , প্রধান মূল বা স্থানিক মূল থাকে না । 

( ii ) পদ্মের মূলে মূলরােম এবং মূলত্র থাকে না , মূলত্রের পরিবর্তে মূলজেব থাকে । মূলরােম না থাকায় সমগ্র দেহতলের মাধ্যমে ব্যাপন প্রক্রিয়ায় জল শােষণ করে । 

( iii ) মূলে সুগঠিত সংবহন কলা থাকে না । 

কাণ্ড : 

( i ) পদ্মের কান্ড জলের নীচে কাদামাটিতে প্রােথিত থাকে । অর্থাৎ প্রকৃতিতে পদ্মের কাণ্ড মৃদগত গ্রন্থিকাণ্ড বা রাইজোম জাতীয় ।

( ii ) জলের তলায় থাকে বলে কান্ড দূর্বল প্রকৃতির হয় । 

( iii ) কাণ্ডের ত্বক রােমবিহীন এবং কাণ্ডের ত্বকে কিউটিকল বা মােমজাতীয় পদার্থের কোনাে আস্তরণ থাকে না । 

( iv ) কান্ডে অসংখ্য বায়ু-গহ্বর থাকায় কাণ্ড স্পঞ্জের মতাে নরম হয় । এই বায়ু-গহ্বর যুক্ত কাণ্ড উদ্ভিদকে জলে ভেসে থাকতে সাহায্য করে এবং বায়ু-গহ্বর থাকায় জল থেকে শােষিত অক্সিজেন সহজেই সকল কোশে পৌঁছেতে পারে । 

( v ) সংবহনকলা এবং যান্ত্রিককলা কাণ্ডে সুগঠিত হয় না । 

পাতা : 

( i ) ভেসে থাকার জন্য পত্রফলকের তলের বিস্তৃতি ঘটায় পত্রফলক বড়াে গােলাকৃতি হয় । 

( ii ) পত্ররন্ধ্র শুধুমাত্র পাতার উপরিতলে থাকে । 

( iii ) আত্মরক্ষার জন্য পত্রবৃন্ত কণ্টকযুক্ত হয় ।

( iv ) পাতার উপরিতলে মােমজাতীয় পদার্থের আস্তরণ থাকে , মােমজাতীয় পদার্থ জলনিরােধক হওয়ায় পত্ররন্ধ্র গুলি জলরুদ্ধ হয় না এবং পাতার উপরিতল জলে ভিজে থাকে না । 

( v ) পত্রবৃন্ত লম্বা এবং প্রচুর বায়ুপূর্ণ গহ্বরযুক্ত হওয়ায় স্পঞ্জের মতাে কঁপা ও নরম , পত্রফলকেও বায়ুপূর্ণ গহ্বর থাকে । পত্রফলক এবং পত্রবৃন্ত বায়ুপূর্ণ গহ্বর যুক্ত হওয়ায় প্লবতা বৃদ্ধি পায় ফলে উদ্ভিদের জলে ভেসে থাকতে সুবিধা হয় । 

ফুল : 

( i ) পদ্মের ফুল পতঙ্গপরাগী হওয়ায় বেশ বড়াে , উজ্জ্বল বর্ণের এবং মৃদু গন্ধযুক্ত হয় । 

( ii ) জলে ভেসে থাকার জন্য পুষ্পাক্ষটি প্রচুর বাতাবকাশ যুক্ত হওয়ায় স্পঞ্জের মতাে হয় । 

( iii ) পুষ্পবৃন্ত লম্বা এবং জলে ভেসে থাকা ও গ্যাসীয় আদান – প্রদানের সুবিধার জন্য প্রচুর বাতাবকাশ যুক্ত হয় । আত্মরক্ষার জন্য পুষ্পবৃন্ত কণ্টকযুক্ত হয় । 

( iv ) অধিক সংখ্যায় পরাগরেণু উৎপন্নের মাধ্যমে নিষেকের সম্ভবনা বৃদ্ধি করার জন্য পদ্মের পুষ্পে অসংখ্য পুংকেশর থাকে এবং স্ত্রী স্তবক শঙ্কুর ন্যায় হওয়ায় নিষিক্ত হওয়ার সম্ভাবনা বৃদ্ধি পায় । 

বীজ : 

( i ) বীজে যাতে জল প্রবেশ করতে না পারে এবং প্রতিকূল পরিবেশও বীজগুলি যাতে নষ্ট না হয় সেজন্য বীজগুলি শক্ত আবরণীযুক্ত হওয়ায় অভেদ্য হয় । 

( ii ) পদ্মের বীজ অনেক দিন ( প্রায় কয়েকশত বৎসর ) সুপ্ত অবস্থায় থাকতে পারে অর্থাৎ পদ্মের বীজের অঙ্কুরোদগম ক্ষমতা সীমাহীন ।

error: Content is protected !!