ফুল কাকে বলে

ফুল কাকে বলে

Screenshot 2021 06 22 at 14 24 05 festive vibrant floral background large 260nw 212068282 webp WEBP Image 390 × 280
ফুল কাকে বলে

জননে সাহায্যকারী পরিবর্তিত ও সীমিত বৃদ্ধি সম্পন্ন এবং ফল ও বীজ সৃষ্টিকারী বিটপ অংশকে ফুল বলে ।

সপুষ্পক উদ্ভিদের বিটপের আকৃতি পরিবর্তিত হয়ে পুষ্পমুকুল সৃষ্টি হয় । এই পুষ্পমুকুল প্রস্ফুটিত হয়ে ফুলে পরিণত হয় । ফুল হল উদ্ভিদের সবচেয়ে সুন্দর অঙ্গ । ফুল নানা বর্ণ ও গন্ধযুক্ত হয় । ফুল উদ্ভিদের জনন ও বংশবিস্তারে সাহায্য করে বলে ফুলকে জনন অঙ্গ বলে । ফুল থেকে ফল ও বীজের সৃষ্টি হয় এবং বীজ থেকেই নতুন উদ্ভিদের সৃষ্টি হয় ।

ফুলের বৈশিষ্ট্য 

ফুলের বৈশিষ্ট্য গুলি হল一

1. ফুল একটি পরিবর্তিত বিটপ ।

2. ফুল উদ্ভিদের একটি ক্ষণস্থায়ী অঙ্গ । 

3. কান্ডশীর্ষ , পত্ৰকক্ষ বা মঞ্জরিপত্রের কক্ষ থেকে ফুল সৃষ্টি হয় । 

4. এটি বিচিত্র বর্ণ , আকার ও গন্ধযুক্ত হয় ।

5. ফুল উদ্ভিদের বংশবিস্তারে সাহায্য করে ।

6. ফুল পুষ্পপত্র ধারণ করে ।

7. ফুল থেকে ফল ও বীজের সৃষ্টি হয় ।

ফুল সম্পর্কে কয়েকটি বিশেষ তথ্য 

1. ফুলের বৃদ্ধি সীমিত এবং ফুল একটি পরিবর্তিত বিটপ । 

2. সম্পূর্ণ ফুলের চারটি স্তবক থাকে , যেমন — বৃতি , দলমন্ডল , পুংস্তবক ও স্ত্রীস্তবক । 

3. ফুলের পুংস্তবক ও স্ত্রীস্তবক হল জনন স্তবক বা অপরিহার্য স্তবক এবং বৃতি ও দলমন্ডল হল সাহায্যকারী স্তবক বা আনুষঙ্গিক স্তবক । চারটি স্তবক থাকলে তাকে সম্পূর্ণ পুষ্প এবং যে-কোনাে একটি স্তবক না থাকলে তাকে অসম্পূর্ণ পুষ্প বলে । 

4. বৃতি ফলের সঙ্গে যুক্ত থাকলে তাকে স্থায়ী বৃতি বলে । যেমন — বেগুন , লঙ্কা ইত্যাদি ; বৃতি যদি বড়াে হয়ে ফলকে আবৃত করে ফেলে তখন তাকে বর্ধনশীল বৃতি বলে । যেমন — চালতা । 

5. ফুলে সাহায্যকারী স্তবক ( বৃতি ও দলমন্ডল ) না থাকলে তাকে নগ্ন পুষ্প বলে , অপরপক্ষে ফুলে অপরিহার্য স্তবক ( পুংস্তবক ও স্ত্রীস্তবক ) না থাকলে তাকে বন্ধ্যা ফুল বলে । 

6. যখন পুরুষ ফুল ও স্ত্রী ফুল ভিন্ন গাছে জন্মায় তখন তাকে ভিন্নবাসী উদ্ভিদ ( Dioecious ) বলে । যেমন — তাল , নারকেল , পেঁপে ইত্যাদি । যখন একই গাছে পুরুষ ফুল ও স্ত্রী ফুল জন্মায় তখন তাকে সহবাসী উদ্ভিদ ( Monoecious ) বলে । যেমন — লাউ , কুমড়াে ইত্যাদি । যখন একই গাছে পুরুষ ফুল , স্ত্রী ফুল ও উভলিঙ্গ ফুল জন্মায় তখন তাকে মিশ্রবাসী উদ্ভিদ ( Polygamous ) বলে । যেমন — আম গাছ । 

7. অনেক সময় ফুল উদ্ভিদের মাটির নীচের অংশ থেকে জন্মায় । যেমন — কাঁঠাল । 

8. নিষেকের সময় ফুলের গর্ভাশয় ফল ও ডিম্বক বীজ সৃষ্টি করে ।

ফুলের বিজ্ঞানসম্মত নাম 

1. জবা – Hibiscus rosa sinensis

2. পদ্ম – Nelumbo nucifera 

3. শালুক – Nymphaea stellata 

4. গোলাপ – Rosa centifolia 

5. গাঁদা – Tagetes patula 

6.  কৃষ্ণচূড়া – Caesalpinia pulcherrima

7. গন্ধরাজ – Gardenia jasminoides 

8.  চন্দ্রমল্লিকা – Chrysanthemum coronarium 

9. সূর্যমুখী – Helianthus annuus

10. অপরাজিতা –  Clitoria ternatea 

11. নয়নতারা – Catharanthus roseus 

12. বকফুল – Sesbania grandifolia 

13. চাঁপা – Michelia champaca 

14. গুলমােহর – Delonix regia 

15. তরুলতা – Ipomoea quamoclit 

16. টগর – Ervatamia divaricata 

17. ডালিয়া – Dahlia pinnata 

18. রজনীগন্ধা – Polianthes tuberosa

19. জুঁই – Jasminum auriculatum 

20. কাঞ্চন – Bauhinia purpurea 

21. বেলিফুল – Jasminum sambac 

22. সন্ধ্যা মালতী – Mirabilis jalapa 

23. রক্তকরবী – Nerium indicunn 

24. বকুল – Mimusops elengi 

25. জিনিয়া – Zinnia elegans 

26. উলটচন্ডাল – Gloriosa superba

error: Content is protected !!