উপপত্র কাকে বলে

উপপত্র কাকে বলে

Screenshot ২০২১০৬১৯ ১৯০৮২৭
উপপত্র কাকে বলে

পাতার পত্ৰমূল থেকে উৎপন্ন ক্ষুদ্র পার্শ্বীয় অঙ্গকে উপপত্র বলে । 

সব উদ্ভিদের পত্রমূলে উপপত্র থাকে না । সাধারণত দ্বিবীজপত্রী উদ্ভিদের নির্দিষ্ট প্রজাতিতে উপপত্র দেখা যায় । বেশির ভাগ ক্ষেত্রে উপপত্র সবুজ বর্ণের হয় । যে পাতায় উপপত্র থাকে তাকে সােপপত্রিক ( Stipulate ) এবং যে পাতায় উপপত্র থাকে না তাকে অনুপপত্রিক ( Exstipulate ) বলে । 

স্থায়িত্ব অনুসারে উপপত্র দু’প্রকার হয় , যেমন— 

স্থায়ী উপপত্র — পাতা যত দিন কান্ডের পর্বে যুক্ত থাকে ততদিন উপপত্রও পাতার সঙ্গে যুক্ত থাকে । 

পাতি উপপত্র — পত্রফলক গঠিত হবার সঙ্গে সঙ্গে উপপত্র পত্রমূল থেকে ঝরে পড়ে । 

উপপত্রের কাজ

প্রথম অবস্থায় পত্রমূলককে রক্ষা করে এবং সবুজ হওয়ার জন্য সালােকসংশ্লেষ প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণ করে ।

উপপত্রের প্রকারভেদ 

আকার ও অবস্থান অনুসারে উপপত্রকে বিভিন্ন ভাগে বিভক্ত করা হয় , যেমন — ( i ) মুক্ত পার্শ্বীয় ( Free lateral ) , ( ii ) বৃন্তলগ্ন ( Adnate ) , ( iii ) বৃন্তমধ্যক ( Interpetiolar ) , ( iv ) কাক্ষিক ( Intrapetiolar ) , ( v ) কান্ডবেষ্টক ( Ochreate )

মুক্ত পার্শ্বীয় উপপত্র :

পত্ৰমূলের দু’পাশে দুটি সরু আলাদা আলাদা সবুজ উপপত্র উৎপন্ন হয় । উদাহরণ — জবা ( Hibiscus rosasinensis ) । 

বৃন্তলগ্ন উপপত্র :

পত্রমূলের দু’পাশে দুটি উপপত্র উৎপন্ন হয়ে পত্রমূলের সঙ্গে সংযুক্ত থাকে এবং কিছুটা উপরের দিকে মুক্ত হয় । উপপত্রদ্বয়কে অনেকটা ডানার মতাে দেখায় । উদাহরণ — গােলাপ ( Rosa centifolia ) । 

বৃন্তমধ্যক উপপত্র :

দুটি অভিমুখ বা বিপরীতমুখী পাতার পত্রমূল থেকে উৎপন্ন হয়ে বৃন্ত দুটির মাঝে থাকে । উদাহরণ — রঙ্গন ( Ixora coccinea ) । 

কাক্ষিক উপপত্র :

উপপত্র দুটি যুক্ত হয়ে পাতার কক্ষে একটি উপপত্রের মতাে থাকে । উদাহরণ — গন্ধরাজ ( Gardenia ) ।

কান্ডবেষ্টক উপপত্র :

দুটি উপপত্র একসঙ্গে যুক্ত হয়ে ফাঁপা নলের মতাে আকৃতি ধারণ করে উপরের পর্বমধ্যের কিছুটা অংশ ঢেকে রাখে । উদাহরণ — বিষকাটালি ( Polygonum hydropiper ) । 

error: Content is protected !!