শিরাবিন্যাস কাকে বলে

শিরাবিন্যাস কাকে বলে

Screenshot ২০২১০৬১৮ ১৮৪৫২৬
শিরাবিন্যাস কাকে বলে

যে নির্দিষ্ট পদ্ধতিতে শিরা উপশিরাগুলি ফলকের ওপরে বিন্যস্ত থাকে , তাকে শিরাবিন্যাস বলে । 

শিরাবিন্যাস এর প্রকারভেদ

জালিকাকার শিরাবিন্যাস :

যখন মধ্যশিরা ক্রমাগত শাখাশিরা ও উপশিরায় বিভক্ত হয়ে ফলকের মধ্যে জালক সৃষ্টি করে , তখন তাকে জালিকাকার শিরাবিন্যাস বলে । উদাহরণ — অশ্বত্থ পাতা ।

সমান্তরাল শিরাবিন্যাস :

যখন মধ্যশিরা থেকে উৎপন্ন শিরাগুলি ফলকে সমান্তরালভাবে বিন্যস্ত থাকে , তখন তাকে সমান্তরাল শিরাবিন্যাস বলে । যেমন — কলাপাতা ।

জালিকাকার ও সমান্তরাল শিরাবিন্যাস নিম্নলিখিত প্রকারের হয় —

একশিরাল শিরাবিন্যাস :

ফলকে একটি মাত্র প্রধান শিরা থাকলে , তাকে একশিরাল শিরাবিন্যাস বলে । যেমন : 

জালিকাকার একশিরাল — আমপাতা । 

সমান্তরাল একশিরাল — কলাপাতা , সর্বজয়া পাতা । 

বহুশিরাল শিরাবিন্যাস :

ফলকে একের অধিক প্রধান শিরা থাকলে , তাকে বহুশিরাল শিরাবিন্যাস বলে । যেমন : 

জালিকাকার বহুশিরাল — কুমড়ােপাতা । 

সমান্তরাল বহুশিরাল — বাঁশপাতা । 

অপসারী বহুশিরাল :

এক্ষেত্রে বৃন্তের অগ্রভাগ থেকে উৎপন্ন প্রধান শিরাগুলি ফলকের বিভিন্ন প্রান্তে বিস্তৃত থাকে , যেমন : 

i. জালিকাকার বহুশিরাল অপসারী — কুমড়ােপাতা । 

ii. সমান্তরাল বহুশিরাল অপসারী — তালপাতা । 

অভিসারী বহুশিরাল :

এক্ষেত্রে বৃন্তের অগ্রভাগ থেকে উৎপন্ন প্রধান শিরাগুলি ফলকে বিস্তৃত হওয়ার পর পুনরায় ফলকের অগ্রে পরস্পরের সঙ্গে মিলিত হয় । যেমন :

i. জালিকাকার বহুশিরাল অভিসারী — তেজপাতা , কুলপাতা । 

ii. সমান্তরাল বহুশিরাল অভিসারী — বাঁশপাতা ।

error: Content is protected !!