দ্বিবীজপত্রী উদ্ভিদের মূলের প্রস্থচ্ছেদ

দ্বিবীজপত্রী উদ্ভিদের মূলের প্রস্থচ্ছেদ

IMG ২০২১০৬০৬ ১৭২৪১০1
দ্বিবীজপত্রী উদ্ভিদের মূলের প্রস্থচ্ছেদ

ছােলা গাছের একটি কচি মূলের প্রস্থচ্ছেদ করে অনুবীক্ষণ যন্ত্রের নীচে পর্যবেক্ষণ করলে তার পরিধি থেকে কেন্দ্রের দিকে ক্রমে নিম্নলিখিত কলাবিন্যাস লক্ষ করা যায়—

ত্বক কলাতন্ত্র

এটি মূলের সবচেয়ে বাইরের স্তর । এটি একস্তর বিশিষ্ট এবং প্যারেনকাইমা কলা দ্বারা গঠিত । মূলত্বকের কোনাে কোনাে কোশ থেকে এককোশী মূলরােম উৎপন্ন হয় ।

আদি কলাতন্ত্র 

ছােলা মূলে আদি কলাতন্ত্র বহিঃস্তর , অন্তস্ত্বক , পরিচক্র , মজ্জা ও মজ্জারশ্মি নিয়ে গঠিত । এদের বিন্যাস নিম্নরূপ 一

( i ) বহিঃস্তর — ত্বক কলাতন্ত্রের পর থেকে এই অংশ বেশ কয়েক সারি প্যারেনকাইমা কোশ নিয়ে গঠিত এবং অন্তস্ত্বক পর্যন্ত বিস্তৃত ।

( ii ) অন্তস্ত্বক – বহিঃস্তরের পর একসারিতে বিন্যস্ত পিপাকৃতি প্যারেনকাইমা কোশ নিয়ে অন্তস্ত্বক গঠিত হয় । 

( iii ) পরিচক্র — অন্তস্ত্বকের ভিতর দিকে ছোটো ও বেলনাকার প্যারেনকাইমা কোশ দিয়ে গঠিত হয় পরিচক্র । 

( iv ) মজ্জা ও মজ্জারশ্মি — মূলের কেন্দ্রে ঘনসন্নিবিষ্ট প্যারেনকাইমা কলা মজ্জা গঠন করে । ঐ একই কলা পাশাপাশি অবস্থিত নালিকা বান্ডিলগুলির মাঝে মজ্জারশ্মি বা যােজক কলা হিসাবে অবস্থান করে । 

( v ) স্ক্লেরেনকাইমা গুচ্ছ ফ্লোয়েম কলার ওপরে অবস্থিত স্ক্লেরেনকাইমা কলাগুলি আদি কলাতন্ত্রের অংশ । 

সংবহন কলাতন্ত্র 

সংবহন কলাতন্ত্রে চারটি জাইলেম ও চারটি ফ্লোয়েম কলাগুচ্ছ পাশাপাশি অরীয়ভাবে অবস্থান করে ।

error: Content is protected !!