সরলবর্গীয় উদ্ভিদ কাকে বলে

সরলবর্গীয় উদ্ভিদ কাকে বলে

coniferous forest spruce trees forests boreal Northern
সরলবর্গীয় উদ্ভিদ কাকে বলে

সরলবর্গীয় বৃক্ষের বনভূমি প্রধানত উত্তর গােলার্ধের ৫০°/৫৫° থেকে ৬৫°/৭০° অক্ষরেখার মধ্যে দেখা যায় । এই অরণ্যের গাছগুলি একেবারে সােজা ও সরলভাবে দাঁড়িয়ে থাকে বলে এদের সরলবর্গীয় উদ্ভিদ বা সরলবর্গীয় বৃক্ষ বলে ।

আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের প্রশান্ত মহাসাগরীয় উপকূল অঞ্চল , রকি পার্বত্য অঞ্চল ও আলাস্কা প্রভৃতি অঞ্চল , কানাডার ৫০% স্থান এবং রাশিয়ার ১/৩ অংশ সরলবর্গীয় অরণ্যের ঢাকা। সমগ্র সাইবেরিয়া জুড়ে এই বনভূমি বিস্তৃত । রাশিয়ায় সাইবেরিয়ার সরলবর্গীয় অরণ্য কে তৈগা বা তাইগা ( Taiga ) বলা হয় । রুশ ভাষায় Taiga শব্দের অর্থ পাইন বন । তবে ইউরেশিয়ার সমগ্র সরলবর্গীয় অরণ্য অঞ্চল তৈগা বলে পরিচিত ।

সরলবর্গীয় অরণ্যে যেসব গাছ দেখা যায় , সেগুলির মধ্যে উল্লেখযােগ্য হল সিডার , পাইন ও ফার ( অ্যাবিস ) । অরণ্যে বিভিন্ন প্রজাতির পাইন ও ফার জন্মায় । যেমন — চির পাইন , দেওদার পাইন , বামন পাইন , সুঁচালাে পাইন এবং রূপালি ফার , ডগলাস ফার ইত্যাদি । এছাড়া প্রুস ও লার্চ জন্মায় । নদীর ধারে মাটিতে আর্দ্রতা বেশি থাকায় উইলাে , অলডার , অ্যাসপেন , বার্চ প্রভৃতি বড়াে পাতার পর্ণমােচী গাছ এবং নদী থেকে অদূরে মস ও লাইকেন জাতীয় উদ্ভিদ জন্মায় ।

সরলবর্গীয় উদ্ভিদ এর বৈশিষ্ট্য

( i ) অত্যধিক তুষারপাত হয় বলে গাছের উপর যাতে বরফ না জমতে পারে , সেজন্য গাছগুলির আকৃতি মােচার মতাে ( শঙ্কু আকৃতি ) বা মন্দিরের চুড়ার মতাে এবং পাতাগুলি সুঁচালাে । 

( ii ) ভূমিভাগ বরফাবৃত থাকে বলে মাটিতে ঝােপঝাড় বা লতা গুল্ম জন্মাতে পারে না । এইজন্য বনভূমির তলদেশ খুব পরিষ্কার । বনভূমির ভিতরে অবাধে চলাফেরা করা যায় । 

( iii ) গাছগুলি সুদীর্ঘ ( ৮০-৮৫ মিটার পর্যন্ত হয় ) এবং সরু । ডালপালার বিস্তার কম এবং ঋজুভাবে দাঁড়িয়ে থাকে । 

( iv ) এই বনভূমিতে একই প্রজাতির গাছ বিস্তৃত অঞ্চল জুড়ে জন্মায় । কোনাে বিশেষ প্রজাতির গাছ খুঁজতে অসুবিধা হয় না । 

( v ) এই বনভূমির গাছের কাঠ খুবই নরম । এজন্য সরলবর্গীয় অরণ্য নরম কাঠের অরণ্য নামেও পরিচিত । 

Leave a Comment

error: Content is protected !!