মগ্নচড়া কীভাবে সৃষ্টি হয়

মগ্নচড়া কীভাবে সৃষ্টি হয়

index 34
মগ্নচড়া কীভাবে সৃষ্টি হয়

উ‌ষ্ণ ও শীতল স্রোতের মিলন হলে শীতল স্রোতের সঙ্গে ভেসে আসা হিমশৈল উ‌ষ্ণ স্রোতের সংস্পর্শে গলে যায় । হিমশৈলের মধ্যে অনেক পাথর , নুড়ি , বালি প্রভৃতি থাকে । হিমশৈল গলে যায় বলে ওগুলি সমুদ্রবক্ষে দীর্ঘকাল ধরে জমতে জমতে উঁচু হয়ে মগ্নচড়ার সৃষ্টি হয় । যেমন — নিউফাউন্ডল্যান্ড উপকূলের  অদূরে গ্র্যান্ড ব্যাংক , গ্রেট ব্রিটেনের অদূরে সমুদ্রবক্ষে ডগার্স ব্যাংক প্রভৃতি বিখ্যাত মগ্নচড়া । মগ্নচড়াগুলি মৎস্যক্ষেত্র হিসেবে বিখ্যাত । 

নিউফাউন্ডল্যান্ড এর কাছে মগ্নচড়া সৃষ্টি হয়েছে কেন

কানাডার পূর্ব উপকূলের অদূরে নিউফাউন্ডল্যান্ড দ্বীপ অবস্থিত । এই দ্বীপটির কাছে আটলান্টিকের অগভীর অংশে সৃষ্টি হয়েছে অনেকগুলি মগ্নচড়া । এগুলির মধ্যে সর্বাপেক্ষা উল্লেখযােগ্য হল গ্র্যান্ড ব্যাংক । এখানে মগ্নচড়া সৃষ্টির কারণ হল এই দ্বীপটির পাশ দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে দুটি বিপরীতধর্মী স্রোত , দক্ষিণমুখী শীতল ল্যাব্রাডর স্রোত এবং উত্তরমুখী উ‌ষ্ণ উপসাগরীয় স্রোত । এই দুই স্রোতের মিলনের ফলেই মগ্নচড়ার উৎপত্তি । সুমেরু মহাসাগরের ভাসমান হিমশৈল সমূহ শীতল ল্যাব্রাডর স্রোতের সঙ্গে দক্ষিণে প্রবাহিত হয় । নিউফাউন্ডল্যান্ডের অদূরে এগুলি যখন উ‌ষ্ণ উপসাগরীয় স্রোতের সংস্পর্শে আসে , তখন গলে যায় । এর ফলে হিমশৈলের মধ্যে থাকা নুড়ি , কাদা , বালি , পাথর প্রভৃতি সমুদ্রবক্ষে জমা হতে থাকে । যুগ যুগ ধরে এইভাবে জমা হওয়ার ফলে এখানকার সমুদ্রবক্ষে মগ্নচড়ার সৃষ্টি হয়েছে ।

Leave a Comment

error: Content is protected !!