ভারতের জলবায়ুর বৈশিষ্ট্য

ভারতের জলবায়ুর বৈশিষ্ট্য

ভারতের জলবায়ুর বৈশিষ্ট্য গুলি হল— 

( ১ ) ভারতের জলবায়ুকে বলে মৌসুমি জলবায়ু । ‘ মৌসুমি ’ শব্দটির উৎপত্তি আরবি শব্দ ‘ মৌসিম্ ’ থেকে । এর অর্থ ‘ ঋতু ’ । তাই ভারতের জলবায়ুর প্রধান বৈশিষ্ট্যও হল ঋতুচক্র । ডিসেম্বর থেকে ফেব্রুয়ারি মাস ভারতে শীতকাল , মার্চ থেকে মে মাস গ্রীষ্মকাল , জুন থেকে সেপ্টেম্বর মাস বর্ষাকাল এবং অক্টোবর ও নভেম্বর মাস শরৎকাল । এই চারটি ঋতু ভারতের জলবায়ুতে চক্রাকারে আবর্তিত হয় । 

( ২ ) ভারতের জলবায়ুতে ঋতু পরিবর্তন হয় দুটি বিপরীতধর্মী মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে — একটি শীতকালীন উত্তর-পূর্ব মৌসুমি বায়ু এবং অন্যটি গ্রীষ্মকালীন দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ু । ভারতের জলবায়ুর ওপর এই দুটি মৌসুমি বায়ুর প্রভাব সর্বাধিক বলে ভারতকে ‘ মৌসুমি বায়ুর দেশ ’ বলা হয় । 

( ৩ ) ভারতে শীতকালে যেদিক থেকে বায়ু প্রবাহিত হয় , গ্রীষ্মকালে বায়ু প্রবাহিত হয় ঠিক তার বিপরীত দিক থেকে । 

( ৪ ) ভারতে গ্রীষ্মকাল আর্দ্র , শীতকাল শুষ্ক । 

( ৫ ) দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে পশ্চিমঘাট পর্বতশ্রেণীর পশ্চিম ঢালে , পূর্ব হিমালয়ের পাদদেশে এবং উত্তর-পূর্ব ভারতের পার্বত্য অঞ্চলে প্রচুর পরিমাণে শৈলোৎক্ষেপ বৃষ্টিপাত হয় এবং ওই বৃষ্টিপাতের পরিমাণ সারা দেশের মধ্যে সর্বাধিক । 

( ৬ ) দক্ষিণ ভারতের তুলনায় উত্তর ভারতের জলবায়ু অনেক বেশি চরমভাবাপন্ন ।

( ৭ ) শীতকালে ভূমধ্যসাগরীয় অঞ্চলে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে উত্তর-পশ্চিম ভারতের সমতল ভূমিতে বেশ বৃষ্টিপাত হয় এবং পার্বত্য অঞ্চলে হয় তুষারপাত । এছাড়া শীতকালে তামিলনাড়ুর উপকূলেও কিছু বৃষ্টিপাত হয় ।

Leave a Comment

error: Content is protected !!