ভারত মহাসাগরের স্রোত

ভারত মহাসাগরের স্রোত

index 25
ভারত মহাসাগরের স্রোত

এশিয়া মহাদেশের দক্ষিণে অবস্থিত ভারত মহাসাগর ক্ষেত্রমানে পৃথিবীতে তৃতীয় । এই মহাসাগর ৭৩.৫ কোটি বর্গকিমি স্থান জুড়ে বিস্তৃত , যা ভূপৃষ্ঠের প্রায় ১৪ শতাংশ এবং জলভাগের প্রায় ২০ শতাংশ অধিকার করে আছে । ভারত মহাসাগরের আকৃতি একটি ত্রিভুজের মতাে এবং এর প্রায় তিন দিক স্থলবেষ্টিত । ভারত মহাসাগরের সমুদ্র স্রোতকে প্রধানত তিন ভাগে ভাগ করা যায়— 

( ক ) ভারত মহাসাগরের দক্ষিণাংশের সমুদ্রস্রোত , 

( খ ) ভারত মহাসাগরের উত্তরাংশের সমুদ্রস্রোত , এবং 

( গ ) ভারত মহাসাগরের মধ্যভাগে নিরক্ষীয় প্রতিস্রোত ।

ভারত মহাসাগরের দক্ষিণাংশের ( নিরক্ষরেখার দক্ষিণের ) সমুদ্রস্রোত 

ভারত মহাসাগরের দক্ষিণাংশে দু-ধরনের স্রোত প্রবাহিত হয়— ( ১ ) শীতল স্রোত এবং ( ২ ) উ‌ষ্ণ স্রোত । 

ভারত মহাসাগরের দক্ষিণাংশের শীতল স্রোত : 

দক্ষিণ মহাসাগর থেকে শীতল ( i ) কুমেরু স্রোতের কিছু অংশ পশ্চিমা বায়ুর প্রভাবে পূর্বদিকে যেতে যেতে অস্ট্রেলিয়ার দক্ষিণপশ্চিম উপকূলে বাধা পেয়ে ( ii ) পশ্চিম অস্ট্রেলীয় স্রোত নামে উত্তরদিকে প্রবাহিত হয় এবং শেষে দক্ষিণ-পূর্ব আয়ন বায়ুর প্রভাবে পশ্চিমদিকে বেঁকে উষ্ণ দক্ষিণ নিরক্ষীয় স্রোতের সঙ্গে মিশে যায় ।

ভারত মহাসাগরের দক্ষিণাংশের উষ্ণ স্রোত : 

নিরক্ষরেখার দক্ষিণ অংশ দিয়ে উষ্ণ ( i ) দক্ষিণ নিরক্ষীয় স্রোত দক্ষিণ-পূর্ব আয়ন বায়ুর প্রভাবে পশ্চিম দিকে যেতে যেতে মালাগাসি দ্বীপের কাছে এসে তিনটি শাখায় বিভক্ত হয়ে একটি শাখা ( ii ) মৌসুমি স্রোত রূপে উত্তরদিকে বেঁকে যায় । দ্বিতীয় শাখাটি মালাগাসির পশ্চিমে মােজাম্বিক প্রণালী দিয়ে ( iii ) মােজাম্বিক স্রোত নামে দক্ষিণে বয়ে যায় । তৃতীয় শাখাটি মালাগাসির পূর্ব উপকূল ধরে ( iv ) মালাগাসি ( মাদাগাস্কর ) স্রোত নামে দক্ষিণে প্রবাহিত হয় । মালাগাসি দ্বীপের দক্ষিণে গিয়ে মােজাম্বিক স্রোত ও মালাগাসি ( মাদাগাস্কর ) স্রোত মিলিত হয় এবং মিলিত স্রোতটি ( v ) আগুলহাস স্রোত নামে আরও দক্ষিণে প্রবাহিত হয়ে শীতল কুমেরু স্রোতের সঙ্গে মিশে যায় ।

ভারত মহাসাগরের উত্তরাংশের ( নিরক্ষরেখার উত্তরের ) সমুদ্রস্রোত 

দক্ষিণ নিরক্ষীয় স্রোতের যে শাখাটি মালাগাসির পাশ দিয়ে উত্তরদিকে বেঁকে যায় , সেটি মৌসুমি বায়ুর গতি ও দিক অনুসারে প্রবাহিত হয় । তাই এর নাম মৌসুমি স্রোত । এই স্রোতটি গ্রীষ্মকালে দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে ডানদিকে বা দক্ষিণাবর্তে বয়ে যায় । আফ্রিকার পূর্ব উপকূল ধরে যাওয়ার সময় স্রোতটি ( i ) সােমালি স্রোত নামে উত্তর-পূর্ব দিকে প্রবাহিত হয় এবং তারপর ( ii ) উত্তর-পূর্ব মৌসুমি স্রোত হিসেবে আরব সাগর ও বঙ্গোপসাগরের মধ্য দিয়ে সুমাত্রা দ্বীপ পর্যন্ত চলে যায় । শীতকালে এই স্রোতটিই আবার উত্তর-পূর্ব মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে ঠিক বিপরীত দিকে অর্থাৎ বামদিকে বা বামাবর্তে বয়ে যায় ( তখন এর নাম হয় দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি স্রোত ) ।

ভারত মহাসাগরের মধ্যভাগের নিরক্ষীয় প্রতিস্রোত 

ভারত মহাসাগরে দক্ষিণ নিরক্ষীয় স্রোত এবং উত্তর নিরক্ষীয় স্রোত বা মৌসুমি স্রোতের মাঝখান দিয়ে একটি উষ্ণ স্রোত পশ্চিম থেকে পূর্বদিকে বয়ে যায় , একে বলে ভারতীয় প্রতিস্রোত বা নিরক্ষীয় প্রতিস্রোত

Leave a Comment

error: Content is protected !!