কালবৈশাখী কাকে বলে

কালবৈশাখী কাকে বলে

images 5
কালবৈশাখী কাকে বলে

গ্রীষ্মকালের দিনের শেষে উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে আগত ঘূর্ণবাতের প্রভাবে পূর্ব ভারতে বিশেষত পশ্চিমবঙ্গ এবং এর সংলগ্ন এলাকাতে বজ্র-বিদ্যুৎসহ ঝড়-বৃষ্টিপাত ও কোনাে কোনাে সময় শিলাবৃষ্টি ও হয় । একে কালবৈশাখী বলা হয় । এটি একটি আকস্মিক বায়ু । ছোটোনাগপুর মালভূমি অঞ্চলের পাথুরে ভূমি সকাল থেকে প্রখর সূর্যতাপে দ্রুত উত্তপ্ত হয়ে যায় । এর ফলে দিনের শেষের দিকে ওই অঞ্চলের বায়ুমণ্ডলে যে গভীর নিম্নচাপের সৃষ্টি হয় তারই প্রভাবে এই স্থানীয় ঘূর্ণবাতের অর্থাৎ কালবৈশাখীর উৎপত্তি । পশ্চিমবঙ্গের কালবৈশাখীকে বিহার ও উত্তরপ্রদেশে আঁধি , অসমে বরদইছিলা এবং দক্ষিণ ভারতে আম্রবৃষ্টি বলা হয় । আবার এই ঘূর্ণবাত উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ছুটে আসে বলে ইংরেজিতে একে Nor’wester ও বলা হয় ।

তবে বাংলায় কালবৈশাখী শুধু বৈশাখ মাসে নয় , প্রায় ফাল্গুনের মাঝামাঝি বা ফাল্গুনের শেষ থেকে জ্যৈষ্ঠের মাঝামাঝি পর্যন্ত এর আগমন হয় । এর মধ্যে চৈত্র-বৈশাখ মাসে কালবৈশাখীর আগমন বেশি হয় । কালবৈশাখীর মাধ্যমে বৃষ্টিপাত কম হয় । তবে ওই সামান্য বৃষ্টিপাতই কৃষিকাজের পক্ষে বিশেষত পাট চাষের জন্য খুবই প্রয়োজনীয় । কালবৈশাখীর আগমনে গ্রীষ্মের প্রখরতা কিছুটা কমে । অনেক আবহাওয়াবিদদের মতে — যে বছর নিয়মিতভাবে কালবৈশাখী ঝড়বৃষ্টি হয় , সে বছর বর্ষাকালীন বৃষ্টিপাতও ভালাে হয় ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x
error: Content is protected !!